banglanewspaper

গোলাম মোস্তফা রাঙ্গা: অঙ্গীভূত আনসার সদস্য ওয়াজেদ আলীর মায়ের ব্রেণ টিউমার অপারেশনের জন্য সকলের কাছে আর্থিক সাহায্যের আবেদন করেছেন।

রংপুর মেডিকেল কলেজের নিউরোলজিস্ট ডা. রাজু আহমেদ ও ডা. রাজকুমার মদকের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসায় থাকা ওয়াজেদ আলীর মা ওয়াজেদা বেগমের টিউমার অপারেশনের জন্য পাঁচ লক্ষ টাকার প্রয়োজন হবে মর্মে ডাক্তারগণ জানিয়েছেন।

ওয়াজেদ আলী জানান, অভাবের সংসারে একমাত্র কর্মক্ষম ব্যক্তি হলেন তিনি। অঙ্গীভূত আনসার হিসেবে চাকরী করতেন। বাহিনীর নিয়মানুযায়ী তিন বছর চাকরীর পর এখন ছয় মাসের রেস্ট এ আছেন। এরই মধ্যে তার স্ত্রী সড়কদুর্ঘটনায় অন্ধ গেছেন। বাবা শেখ ফরিদ উদ্দিনের বয়স ৬২ বছর। তিনি ব্যাটালিয়ন আনসার হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

২০০৪ সালে ওয়াজেদ আলীর মা কিডনীজনিত রোগে অসুস্থ হন। সেই সময় স্ত্রী অসুস্থতার কারণে তার বাবা প্রায় তিনমাস কর্মস্থলে উপস্থিত হতে পারেন নাই। ফলে ২০০৪ সালের ০৭ আনসার ব্যাটালিয়ন হতে বাবাকে চাকরীচ্যূত করা হয়।

লালমনিরহাট সদর উপজেলার থানাপাড়া বসবাসকারী ওয়াজেদ আলী আরো জানান, স্ত্রীর পিছনে ইতোমধ্যে অনেক টাকা খরচ হয়ে গেছে। বাহিনীর কল্যাণ তহবিল হতে স্ত্রীর চিকিৎসার জন্য কিছু টাকা পাওয়া গেলেও মায়ের চিকিৎসার জন্য কল্যাণ তহবিল হতে টাকা পাওয়ার কোন ব্যবস্থা নেই।

স্থাবর-অস্থাবর যা কিছু ছিলো তা বিক্রয় করে এবং বাহিনীর বেশ কয়েকজন কর্মকর্তার আর্থিক সাহায্যে প্রায় ৩ লক্ষ টাকা সংগ্রহ করতে পেরেছেন। আরো প্রায় ২ লক্ষ টাকা ঘাটতি থাকায় অপারেশন করতে পারছেন না। চোখের সামনে মাকে ছটপট করতে দেখতে হচ্ছে। যা একজন সন্তানের জন্য অত্যান্ত বেদনাদায়ক।

তিনি তার ব্যক্তিগত রকেট নম্বর ০১৯৭৫০৯৬৯৯৯৩-এ আর্থিক সাহায্য পাঠাতে অনুরোধ করেছেন।

ট্যাগ: bdnewshour24 আনসার সদস্য