banglanewspaper

জন আব্রাহাম অভিনীত ‘সত্যমেভ জয়তে’ সিনেমার আইটেম গান ‘দিলবার’-এ বেলি ড্যান্স দিয়ে বিনোদন দুনিয়ায় বেশ বড়সড় ঝাঁকুনি দিয়েছিলেন নোরা ফাতেহি। এর পর থেকে দিলবারকন্যা নামেই পরিচিতি তাঁর। মিউজিক ভিডিওতে তাঁর নজরকাড়া উপস্থিতি মন্ত্রমুগ্ধ করে রাখে সবাইকে। তবে সাফল্যের দেখা পাওয়া সহজ ছিল না নোরার জন্য।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজ এক খবরে জানিয়েছে, বহু কাঠখড় পুড়িয়ে বলিউডে নিজের অবস্থান তৈরি করেছেন মরক্কো-কানাডীয় বংশোদ্ভূত নোরা। দুঃসহ সেই অতীত মনে পড়তেই আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন নোরা। জানান বলিউডে পা রাখার সংগ্রামের প্রথম দিককার কথা। বলেন, ‘মাত্র পাঁচ হাজার টাকা নিয়ে ভারতে এসেছিলাম।’

স্বপ্নের বলিউডে স্থান করে নেওয়া ভারতের নাগরিকদের জন্যই বেশ কঠিন ব্যাপার। কানাডার বাসিন্দা হিসেবে ভারতে নোরার পথচলা যে একদমই সহজ ছিল না, তা নিশ্চিত। নোরা তা স্বীকারও করেছেন।

সাক্ষাৎকারে নোরা বলেন, ‘মুম্বাইয়ে এক এজেন্সির সঙ্গে কাজ করে সপ্তাহে মাত্র তিন হাজার রুপি পেতাম। সেই সীমিত অর্থেই মুম্বাইয়ের মতো ব্যয়বহুল শহরে টিকে থাকার সংগ্রাম চালিয়ে গিয়েছি।’

এত কষ্টের পরেও নিজের লক্ষ্যকে ভুলে যাননি নোরা। প্রতিনিয়ত নাচের অনুশীলন করেছেন, শরীরচর্চাতেও ছিলেন মনোযোগী। বিভিন্ন প্রতিযোগিতায়ও অংশ নিয়েছেন।

সাফল্যের ৯৯ শতাংশ নাকি অধ্যাবসায়ের ওপর নির্ভর করে। এ কথা বিশ্বাসীদের দলে কেউ থাকুক বা না থাকুক, নোরা হয়তো থাকবেন। তাঁর অধ্যাবসায় তাঁকে ডাক এনে দিয়েছে মিউজিক ভিডিওতে কাজ করার। সেখানে বেশ ভালোভাবেই নিজেকে চেনান নোরা।

মুম্বাই শহরে টিকে থেকে স্বপ্নপূরণের সংগ্রাম করা নোরা এখন বলিউডে জনপ্রিয় নাম। ‘ও সাকি সাকি’, ‘কামারিয়া’র মতো গানে তাঁর আকর্ষণীয় ভঙ্গিমা ভক্তদের মন কেড়ে নিয়েছে।

নোরা অভিনীত সর্বশেষ সিনেমা ‘বাটলা হাউস’ সাড়া ফেলেছে বক্স অফিসে। সব মিলিয়ে বলা চলে, দুঃসময় পেরিয়ে সুসময়ের সন্ধান বেশ ভালোভাবেই পেয়েছেন নোরা।

ট্যাগ: bdnewshour24 অভিনেত্রী