banglanewspaper

ওজন কমালে বা প্রেগন্যান্সির পরে স্ট্রেচ মার্কস অথবা প্রসারণজনিত দাগ একটি অত্যন্ত স্বাভাবিক বিষয়। তবুও তা নিয়ে হীনমন্যতায় ভোগেন অনেক নারী। তারকাদের ক্ষেত্রে আবার অনেকে এই স্ট্রেচমার্কসের কারণে সমালোচনার শিকারও হন।

ঠিক তেমনটাই হলো অভিনেত্রী জেরিন খানের সঙ্গে। সম্প্রতি রাজস্থানে বেড়াতে গিয়েছেন জেরিন। সেখানো তোলা একটি ছবি ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন তিনি। ছবিতে তার পেটের খোলা অংশ দেখা যাচ্ছে স্ট্রেচ মার্কস। সে নিয়েই সোশাল মিডিয়ায় ট্রলের শিকার হচ্ছেন নায়িকা।

নানা জনের কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যে আক্রমণের শিকার হয়েছেন জেরিন। অনেকেই প্রশ্ন করছেন এসব কীসের দাগ? কেউ কেউ তাকে বিয়ে লুকিয়ে মা হওয়ার খোঁচাও দিচ্ছেন। দাবি করছেন এগুলো মাতৃত্বের দাগ। এমন ট্রলের সময়ে জেরিনের পাশে দাঁড়িয়েছেন আনুশকা শর্মা।

ট্রলের জবাব দিতে ছাড়েননি জেরিন নিজেও। জেরিনের হয়ে মুখ খোলেছেন তার ভক্তরাও। 
এক স্ট্যাটাসে জেরিন খান বলেন, ‘প্রায় ৫০ কেজিরও বেশি ওজন কমালে স্ট্রেচ মার্কস থাকাটা খুবই স্বাভাবিক। চিরকালই আমি স্বাভাবিক শারীরিক সৌন্দর্যে বিশ্বাস করে এসেছি। তাই স্ট্রেচ মার্কস নিয়ে আমি মাথা ঘামাই না।

ফোটোশপ বা সার্জারি না করলে স্বাভাবিক মানুষের শরীর এমনই হয়। এগুলো নিয়ে যারা মজা করেন তাদের রুচির সমস্যা আছে।’

আর জেরিনের পাশে দাঁড়িয়ে আনুশকা লিখেছেন, ‘জারিন তুমি যেরকম, সেরকমই সুন্দরী। তুমি সাহসী ও আত্মবিশ্বাসী।’ আনুশকার এই স্ট্যাটাসের প্রশংসা করেছেন নেটিজেনরাও। যেভাবে একজন অভিনেত্রী হয়ে আরেক অভিনেত্রীর পাশে দাঁড়ালেন তার আলোচনা এখন সোশাল মিডিয়ায়।

প্রসঙ্গত, সৌন্দর্য নিয়ে কখনোই ভাবতে না হলেও ক্যারিয়ার নিয়ে জেরিন খানকে সবসময়ই দুশ্চিন্তায় থাকতে হচ্ছে। সর্বশেষ তাকে ‘আকসর ২’, ‘হেট স্টোরি ৩’ ও ‘১৯২১’ ছবিতে অভিনয় করতে দেখা গেছে। বক্স অফিসে ছবিগুলো সাড়া ফেলতে পারেনি।

এবার শোনা যাচ্ছে, তেলুগু ছবিতে অভিষেক করতে চলেছেন জেরিন। দেখা যাকে সেখানে নিজেকে প্রমাণ করতে পারেন কী না।

ট্যাগ: bdnewshour24 নায়িকা মাতৃত্বের দাগ