banglanewspaper

ভারতের মধ্যপ্রদেশে ‌ঢিল ছোঁড়া উৎসবে আহত ১৬৮ জন। ঘটনাটি ঘটে গতকাল শনিবার ছিন্দওয়ারা জেলায়। মধ্যপ্রদেশে এই উৎসবের স্থানীয় নাম ‘‌গোটমার’।

প্রতিবছর এইসময়ে ভাদ্রপদের তিথিতে এই উৎসব পালন করা হয়ে থাকে। প্রায় ৪০০ বছরের পুরনো লোককথাকে ঘিরে আজও পালিত হয়ে আসছে এই উৎসব।

ছিন্দওয়ারা জেলার জাম নদীর তিরে রয়েছে দুটি গ্রাম। সাওয়ারগাঁও ও‌ পানধুরনা। এই দুই গ্রামের মানুষ ‘‌গোটমার’‌ উৎসবে অংশগ্রহন করেন। উৎসবের একটি নিয়মও রয়েছে। নিয়ম অনুযায়ী, জাম নদীর মধ্যখানে একটি গাছে লাগানো থাকে পতাকা।

যে গ্রামের মানুষ এই পতাকা আগে ছুঁতে পারবে, সেই গ্রামকেই জয়ী ঘোষণা করা হয়। দুই গ্রামের মানুষেরাই চেষ্টা করে নদী পেরিয়ে ওই গাছে চড়ে পতাকা ছুঁতে। আর একে অপরকে আটকাতে ছোঁড়ে ঢিল। গত ৪০০ বছর ধরে এইভাবেই উৎসব পালিত হয়ে আসছে।

স্থানীয় সূত্রে খবর, প্রায় ৪০০ বছর আগে পানধুরনা গ্রামের রাজা সাওয়ারগাঁও গ্রামের রাজার মেয়েকে অপরহরণ করে পালায়। গ্রামবাসীরা জানতে পেরে পানধুরনা গ্রামের রাজাকে আটকাতে ঢিল ছুড়তে আরম্ভ করে। আর রাজাকে বাঁচাতে পানধুরনা গ্রামের মানুষও পালটা ঢিল ছোঁড়ে। আর সেই থেকেই চলে আসছে একে অপরকে ঢিল ছোঁড়ার এই উৎসব।

প্রশাসন বহুবার এই উৎসব নিষিদ্ধ করতে চেয়েছিল। কিন্তু গ্রামবাসীদের বিরোধের মুখে পড়ে আর নিষিদ্ধ করা যায়নি। গত বছরও এই উৎসবে প্রায় ৩০০ জন গুরুতর আহত হয়েছিলেন। একজনের মৃত্যুও হয়েছিল। যদিও এবছর এখনও পর্যন্ত মৃতের কোনও খবর পাওয়া যায়নি।

ট্যাগ: bdnewshour24 ভারত ঢিল ছোঁড়া