banglanewspaper

সাকিবসহ চার স্পেশালিস্ট স্পিনার, সঙ্গে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মোসাদ্দেক হোসেন, মুমিনুল হকসহ মোট সাতজন স্পিনার নিয়ে আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট খেলতে নামে বাংলাদেশ। টস জিতে আগে ব্যাট করতে নামা আফগানিস্তানকে বিপদে ফেলতে শুরু থেকেই একটু ব্যতিক্রমী বোলিং আক্রমণ সাজান বাংলাদেশ অধিনায়ক। প্রথম চার ওভারে তিনজন স্পিনার ব্যবহার করেন সাকিব। তাতে সাফল্যও আসে। লাঞ্চের আগেই অতিথিদের টপঅর্ডার গুঁড়িয়ে দেয় স্বাগতিকরা। স্পিন দাপটে সাগরিকায় প্রথম সেশন নিজেদের করে নেয় সাকিব আল হাসানের দল।

লাঞ্চ বিরতির আগে ৩ উইকেটে ৭৭ রান তুলেছে আফগানিস্তান। তিন নম্বরে নেমে উইকেটে লড়ছেন রহমত শাহ (৩০)।

টস হেরে ফিল্ডিংয়ে নামা বাংলাদেশ শুরু থেকেই বেশ নিয়ন্ত্রিত বোলিং করেছে। প্রথম ঘণ্টায় উইকেট পেতে দেরি হলেও রানের গতি খুব বেশি বাড়তে দেননি বাংলাদেশের স্পিনাররা। আফগানদের দলীয় ১৯ রানের মাথায় বাংলাদেশকে প্রথম সাফল্য এনে দেন তাইজুল ইসলাম। বাঁহাতি স্পিনের দারুণ এক ডেলিভারিতে ইহসানউল্লাহকে ব্যক্তিগত ৯ রানের মাথায় বোল্ড করেন তাইজুল। এর মাধ্যমে টেস্ট ক্রিকেটে উইকেট শিকারের সেঞ্চুরি করেন তিনি। বাংলাদেশের হয়ে সবচেয়ে কম টেস্ট ম্যাচ খেলে তুলে নেন নিজের শততম টেস্ট উইকেট।

দ্বিতীয় ঘণ্টায়ও আফগান শিবিরে আঘাত হানেন তাইজুল। ওপেনার ইব্রাহিম জাদরানকে (২১) লংঅফে মাহমুদউল্লাহর হাতে ক্যাচ দিতে বাধ্য করে নিজের ১০১তম উইকেট তুলে নেন এই বাঁহাতি স্পিনার।

লাঞ্চের আগমুহূর্তে বৈচিত্র্যের জন্য মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে আক্রমণে আনেন সাকিব। বল হাতে এসেই বাংলাদেশকে সাফল্য এনে দেন এই অলরাউন্ডার। তুলে নেন আফগানদের তৃতীয় উইকেট। সব মিলিয়ে স্পিন আক্রমণে ভালোভাবেই প্রথম সেশন পার করেছেন রাসেল ডমিঙ্গোর শিষ্যরা।

বাংলাদেশ একাদশ : সাদমান ইসলাম, লিটন দাস, মুমিনুল হক, মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), মাহমুদউল্লাহ, সৌম্য সরকার, মোসাদ্দেক হোসেন, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম ও নাঈম হাসান।

আফগানিস্তান একাদশ : ইব্রাহিম জাদরান, ইহসানউল্লাহ, রহমত শাহ, হাশমতউল্লাহ শহিদি, আসগর আফগান, মোহাম্মদ নবি, আফসার জাজাই, রশিদ খান (অধিনায়ক), ইয়ামিন আহমাদজাই, কাইস আহমেদ ও জহির খান।

ট্যাগ: bdnewshour24 বাংলাদেশ