banglanewspaper

কাজী আশরাফ, লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধিঃ নড়াইলের লোহাগড়ায় লক্ষীপাশা মহিলা আদর্শ ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ তরফদার কামরুল ইসলামকে অপসারণের দাবীতে মানববন্ধন ও সমবেশ করেছে এলাকাবাসী।

বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলা পরিষদের সামনে ঘন্টাব্যাপি এ মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে অংশনেন এলাকার বিভিন্ন শ্রেনীপেশার মানুষ।

এসময় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক সরদার আব্দুল হাই, দপ্তর সম্পাদক শরীফুল ইসলাম সরু, পৌর কাউন্সিলর গিয়াস উদ্দিন ভূইয়া, সৈয়দ শাহজাহান সিরাজ বিদ্যুত, লক্ষীপাশা বাজার কমিটির সেক্রেটারী বিএম লিয়াকত হোসেন, সোলায়মান মোল্যা পান্নু, ইউসুফ মোল্যা ও এসএম সাহেদ মাহমুদসহ অনেকেই।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, ১৯৯৫ সালে নারী শিক্ষা প্রসারের লক্ষ্যে এলাকার শিক্ষানুরাগী ব্যক্তিবর্গের প্রচেষ্টায় উপজেলার প্রাণকেন্দ্রে লক্ষীপাশা আদর্শ মহিলা কলেজ প্রতিষ্ঠা করা হয়। ২০০৬ সালে কলেজে যোগদান করেন তরফদার কামরুল ইসলাম। তিনি অধ্যক্ষ হিসেবে যোগদানের পর থেকেই অনিয়ম, দুর্নীতি ও ক্ষমতার অপব্যবহার করে লাখ লাখ টাকা আত্মসাৎ করে আসছেন বলে সমাবেশে বক্তারা অভিযোগ করেন।

উল্লেখ্য গত মঙ্গলবার রাতে অধ্যক্ষের অপসারণ ও দুর্নীতির খন্ড চিত্রের ফিরিস্তি তুলে ধরে পৌর শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে এলাকাবাসীর ব্যানারে পোষ্টার ও লিফলেট বিতরণ করা হয়।

এসব অভিযোগের বিষয়ে অধ্যক্ষ তরফদার কামরুল ইসলামের সাথে কথা বলার জন্য কলেজে গিয়ে দেখা যায় তার কক্ষে তিনটা তালা দিয়ে বন্ধ করে রাখা হয়েছে। মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, আমি ঢাকায় আছি। শুনেছি আমার বিরুদ্ধে এলাকাবাসি মানববন্ধন, পোষ্টার ও লিফলেট বিতরণ করেছে। বাস্তবে আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ মিথ্যা ভিত্তিহীন।

এ ব্যাপারে কলেজের সভাপতি ও নড়াইল জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা বলেন, অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও পোষ্টার-লিফলেট বিতরণের বিষয়টি শুনেছি, তবে লিখিত অভিযোগ পায়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ট্যাগ: bdnewshour24 লক্ষীপাশা আদর্শ মহিলা ডিগ্রী কলেজ