banglanewspaper

ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয়ে প্রথমে কথোপকথন পরে প্রেমের সম্পর্ক স্থাপন। এরপর অন্তরঙ্গ ছবি তুলে ব্ল্যাকমেইলের ফাঁদ পাতেন। এভাবে ইচ্ছেমতো হয়রানি করে আসছিলেন ওয়ালিদ হোসেন রাসেল নামে এক প্রতারক।

৩৬তম বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে প্রশাসন ক্যাডারের সহকারী কমিশনার পরিচয় দিয়ে কুমকুম (ছদ্মনাম) নামে এক শিক্ষার্থীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলেন। এরপর যথারীতি চাঁদা দাবিসহ বিভিন্নভাবে ব্ল্যাকমেইল শুরু করেন।

প্রতারণার বিষয়টি বুঝতে পেরে র‌্যাব-৪ এ অভিযোগ করেন ওই তরুণী। বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর মিরপুর এলাকার একটি ভাড়া বাসা থেকে ওই প্রতারককে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় ল্যাপটপ ও পেনড্রাইভে সংরক্ষিত বিভিন্ন অশ্লীল ছবি জব্দ করা হয়।

র‌্যাব-৪ এর দাবি, গ্রেফতার রাসেল ভুয়া ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয়ে আরও ৪/৫ জন মেয়েকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে তাদের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করেছেন এবং অশ্লীল দৃশ্য মোবাইলফোনে ধারণ করে এবং একই পন্থায় তাদের কাছেও চাঁদা দাবিসহ বিভিন্নভাবে ব্ল্যাকমেইল করে আসছিলেন।

র‌্যাব-৪ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া কো-অর্ডিনেটর) এএসপি মোহাম্মদ সাজেদুল ইসলাম সজল বলেন, ভুক্তভোগী ওই তরুণী একটি অভিজাত পরিবারের সন্তান। তার বাবা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক। ইডেন মহিলা কলেজে অধ্যয়নকালে বিশেষ প্রয়োজনে বরিশাল শহরে অবস্থান করে লেখাপড়া করে আসছিলেন তিনি।

ট্যাগ: bdnewshour24 ম্যাজিস্ট্রেট