banglanewspaper

ফরহাদ খান, নড়াইল: নড়াইলের নড়াগাতি থানার ডুমুরিয়া গ্রাম থেকে একটি শর্টগান, রিভালভারের ছয় রাউন্ড গুলি ও ১২৫ পিস ইয়াবাসহ মাদক এবং অস্ত্র কারবারি আহমেদ বিশ্বাসকে (৩২) আটক করেছে থ্রি-এপিবিএন পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে দুই ঘণ্টার এ অভিযানের নেতৃত্ব দেন থ্রি-এপিবিএন (আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন) অপারেশন অ্যান্ড ইন্টিলিজেন্স বিভাগের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গোপীনাথ কাঞ্জিলাল। আহমেদ বিশ্বাসকে আজ শুক্রবার আদালতে পাঠানো হয়েছে। 

পুলিশ কর্মকর্তা গোপীনাথ কাঞ্জিলাল জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ও তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে নড়াগাতি থানার ডুমুরিয়া গ্রামের মজনু বিশ্বাসের ছেলে আহমেদ বিশ্বাসের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়।

এ সময় তার বাড়ি থেকে একটি মডার্ণ ডিবিবিএল শর্টগান (Modern double-barreled shotguns), রিভালভারের ছয় রাউন্ড গুলি ও ১২৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। তবে আহমেদ বিশ্বাসের ফুফাতো ভাই অস্ত্র ও মাদক মামলার একাধিক আসামি পাশের বাঐসোনা  গ্রামের তারেক খন্দকার পুলিশের উপস্থিত টের পেয়ে পালিয়ে যায়।

এছাড়া আহমেদের স্ত্রী রিভালভার নিয়ে পালিয়েছে। পরে এপিবিএন সদস্যরা বাঐসোনা গ্রামের আখতারুজ্জামান খন্দকারের ছেলে তারেকের বাড়িতে অভিযান চালান। তবে এখান (তারেক) থেকে কিছু উদ্ধার হয়নি। তারেকের বিরুদ্ধে ঢাকার বিভিন্ন থানায় অন্তত ১১টি মামলা রয়েছে এবং একজন পেশাদার খুনি। আর তারেকের সহযোগী হলো আটককৃত আহমেদ বিশ্বাস।

এ ক্ষেত্রে তারেক অপরাধ কর্মকান্ডের মূল পরিকল্পনাকারী বলে জানিয়েছেন থ্রি-এপিবিএন, অপারেশন অ্যান্ড ইন্টিলিজেন্স বিভাগের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গোপীনাথ কাঞ্জিলাল। 

শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নড়াগাতি থানার ওসি আলমগীর কবির বলেন, এ ঘটনায় এপিবিএনের এসআই কৃপা সিন্ধু মৃধা বাদী হয়ে নড়াগাতি থানায় অস্ত্র ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে আহমেদ বিশ্বাসের বিরুদ্ধে দু’টি মামলা করেন। আহমেদকে আজ শুক্রবার আদালতে পাঠানো হয়েছে।

ট্যাগ: bdnewshour24 নড়াইল