banglanewspaper

বাংলাদেশের শরণার্থী শিবিরে অবস্থান করা রোহিঙ্গাদেরকে নিজ দেশে ফিরিয়ে দেওয়ার আলোচনার মধ্যেই নতুন করে অনুপ্রবেশের চেষ্টা হচ্ছে। আর বিভিন্ন ঘটনায় সীমান্তে সর্বোচ্চ সতর্ক আবস্থানে রয়েছে সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবি।

শুক্রবার গভীর রাতে কক্সবাজারের টেকনাফের হ্নীলা নয়াপাড়া নাফনদী সীমান্ত দিয়ে প্রবেশের চেষ্টার সময় ছয় জন রোহিঙ্গাকে আটক করে বিজিবি।

টেকনাফ ২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল ফয়সল হাসান খান বলেন, ‘শুক্রবার গভীর রাতে টেকনাফের হ্নীলা নয়াপাড়া বিশেষ ক্যা¤েপর নায়েক সুবেদার শাহ আলমের নেতৃত্বে একটি বিশেষ টহলদল হ্নীলা নয়াপাড়া নাফ নদীর কুতুবদিয়া ঘাট এলাকা দিয়ে অনুপ্রবেশের চেষ্টাকালে মিয়ানমারের ছয় রোহিঙ্গা নাগরিককে আটক করে। তাদের মধ্যে তিন জন নারী এবং তিন জন শিশু ছিল। পরে তাদেরকে একই সীমান্ত দিয়ে স্বদেশে ফেরত পাঠানো হয়।’

‘নতুন করে কোন রোহিঙ্গা বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করতে না পারে সে বিষয়ে বিজিবি সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। নাফ নদী পেরিয়ে মিয়ানমার থেকে আবারও নতুন করে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ ঘটতে পারে, এমন আশঙ্কায় সীমান্ত জুড়ে নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।’

মিয়ানমারে সেনা অভিযানের মুখে আশির দশক থেকে নানা সময় রোহিঙ্গারা প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশে ছুটে আসছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বড় অনুপ্রবেশর ঘটনা ঘটে ২০১৭ সালের আগস্টে। এখন বাংলাদেশে সব মিলিয়ে ১১ লাখের বেশি রোহিঙ্গা আছে যারা কক্সবাজারের বিভিন্ন ক্যাম্পে অবস্থান করছে।

রোহিঙ্গাদেরকে নিজ দেশে ফিরিয়ে দিতে বাংলাদেশ সরকার মিয়ানমারের সঙ্গে যোগাযোগ চালিয়ে যাচ্ছে। দুই পক্ষে একাধিক চুক্তি ও সমাঝোতা স্মারক সই হয়েছে। তবে দুই বার দিনক্ষণ ঠিক করেও শুরু করা যায়নি প্রত্যাবাসন।

বাংলাদেশে আটকে পড়া রোহিঙ্গারা চাইছে মিয়ানমারের নাগরিকত্ব, চলাচলের অধিকার এবং জীবনের নিরাপত্তা। তবে তাদেরকে নিজ দেশের নাগরিক হিসেবে স্বীকার করতে চায় না মিয়ানমার।

ট্যাগ: bdnewshour24 অনুপ্রবেশ রোহিঙ্গা পুশব্যাক