banglanewspaper

৩৯৮ রানের রেকর্ড লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুটা ভালো হলো না। দলীয় মাত্র ৩০ রানে ব্যক্তিগত ৯ রান করে জাহির খানের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে সাজঘরে ফিরে গেছেন অপেনার লিটন দাস। শুরুতেই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়েছে বাংলাদেশ। 

২১ রানে অপরাজিত থাকা সাদমান ইসলামের সঙ্গে জুটি গড়তে ক্রিজে এসেছেন প্রথম ইনিংসে ৪৮ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলা মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। 

আজ ডানহাতি বামহাতি কম্বিনেশনের কথা মাথায় রেখে সাদমানের সঙ্গে লিটনকে দিয়ে ইনিংসের গোড়াপত্তন করানো হয়। তখনই প্রশ্ন উঠে- তাহলে সৌম্য সরকার কয় নম্বরে ব্যাট করবেন? মুমিনুল কি তিনে নামবেন? মুশফিক কি সাকিবের আগে চারে ব্যাট করবেন? তবে পরিস্থিতি বুঝে ব্যাটিং লাইনআপে আরও একবার চমক দেখালো বাংলাদেশ। ৮ নম্বর থেকে ৫ ধাপ উপরে তিনে জায়গা করে দেয়া হলো মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতকে। প্রথম ইনিংসে তার ব্যাটে ভর করেই ২০০ পেরিয়েছিল বাংলাদেশ। টাইগার সমর্থরা আরও একবার সৈকতের ব্যাটে চওড়া হাসি প্রত্যাশা করছে। 

এর আগে চট্টগ্রাম টেস্টের চতুর্থ দিন সকালে আগের দিনের ২৩৭ রানের সঙ্গে ২৩ রান যোগ করে ২৬০ রানে অলআউট হয় আফগানিস্তান। 

২০১৪ সালে জিম্বাজুয়ের বিপক্ষে ঘরের মাঠে সর্বোচ্চ ১০১ রান তাড়া করে টেস্ট ম্যাচ জিতেছে বাংলাদেশ। এছাড়া সর্বোচ্চ ২১৫ রান তাড়া করে টেস্ট জয়ের রেকর্ড আছে তাদের। এবার লক্ষ্যটা যখন ৩৯৮ রান। তবে ২০০৮ সালে শ্রীলঙ্কার দেয়া ৫২১ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে চতুর্থ ইনিংসে ৪১৩ রান করেছিল বাংলাদেশ।

ট্যাগ: bdnewshour24 লিটন