banglanewspaper

সময়ের হিসাবে পঞ্চম দিনে এখন পর্যন্ত প্রায় ৪০ ওভার কিংবা তারও বেশি বল মাঠে গড়ানোর কথা। কিন্তু রবিবার রাত থেকে বাংলাদেশ শিবিরের জন্য আশীর্বাদ হয়ে আসা বৃষ্টিতে চট্টগ্রাম টেস্টের পঞ্চম দিনে শেষ মুহূর্তে ম্যাচ বাঁচানোর স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছে বাংলাদেশ। 

সোমবার সকাল ১০টায় ম্যাচ শুরু হওয়ার কথা থাকলেও টানা বৃষ্টিতে হতাশার ছাপ বাড়ছিল আফগান ক্রিকেটারদের চোখেমুখে। বিপরীতে ড্রেসিং রুমে অলস সময়ে বৃষ্টি উপভোগ্য হয়ে উঠছিল টাইগার শিবিরে। সকাল থেকে রশিদ খানরা বল হাতে প্রস্তুত থাকলেও বৃষ্টিবাধায় সাংবাদিক, ধারাভাষ্যকার কেউই মাঠে আসেননি। গ্যালারিতে দর্শকও ছিল না।

সাকিব-মুশফিকদের মনেও হয়তো বৃষ্টিতে ম্যাচ পণ্ড হওয়ার সুপ্ত বাসনাই ছিল। কারণ টেস্টের পঞ্চম দিনে শেষ ৪ উইকেটে ২৬২ রান তোলা যেকোনও দলের পক্ষে অসাধ্য প্রায়। সেটি আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে অকপটেই স্বীকার করেছিলেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। 

শেষ দিনের প্রথম সেশনে একটি বলও মাঠে গড়ায়নি। দ্বিতীয় সেশনে মাত্র ৭ মিনিট খেলা হয়েছে। মাঠে গড়িয়েছে ১৩টি বল। এরপরই আবারও গুড়িগুড়ি বৃষ্টি। সাকিব-সৌম্যরা ছাতা মাথায় প্যাভিলিয়নের দিতে হাঁটা শুরু করলেন। বিপরীতে রশিদ-নবীদের পা যেন চলছিল না। যেন আকাশের কালো মেঘ আফগানদের হৃদয়ের প্রতিচ্ছবি হয়ে উঠছিলো। 

চট্টগ্রাম টেস্টের এখনও যেটুকু সময় আছে তাতে করে অন্তত ৩০ ওভারের মতো খেলা চালানো সম্ভব। তবে যদি বৃষ্টি থামে, যদি মাঠ খেলার উপযোগী হয়। অন্তত শেষ বিকেলে ২০টি ওভার হলেও খেলা হোক- আপাতত কায়মনোবাক্যে সেই প্রার্থনাই আফগান শিবিরে। কেননা, বাংলাদেশের বিপক্ষে জয়টা যে তাদের হাতের নাগালে প্রায়। 

ট্যাগ: bdnewshour24 বৃষ্টি