banglanewspaper

পাইলট অ্যাসোসিয়েসনের ডাকা ধর্মঘটের কারণে সোমবার (৯ সেপ্টেম্বর) এবং মঙ্গলবার (১০ সেপ্টেম্বর) নির্ধারিত সকল ফ্লাইট বাতিল ঘোষণা করেছে ব্রিটিশ এয়ারোয়েজ। খবর সিএনএনের।

বেতনভাতা নিয়ে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের সাথে দ্বন্দ্ব শুরু হওয়ার পর এই ধর্মঘটের ডাক দেয় ব্রিটিশ এয়ারলাইন পাইলটস অ্যাসোসিয়েসন (বিএএলপিএ)।

বিএএলপিএর টুইটার একাউন্ট থেকে রোববার (৮ সেপ্টেম্বর) জানানো হয়েছে, বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) তারা তাদের দাবি দাওয়া নিয়ে ক্যারিয়ারটির ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের সাথে বসতে আগ্রহী।

সোমবার (৯ সেপ্টেম্বর) ব্রিটিশ এয়ারোয়েজ এক বিবৃতিতে জানায়, তারা পাইলট অ্যাসোসিয়েসনের সাথে আলোচনা করতে প্রস্তুত।

ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ আরও জানায়, যেহেতু তাদের কাছে কোন তথ্য নেই যে কোন কোন পাইলট ধর্মঘটে আছেন। তাই তারা এ ব্যাপারেও জানেন না কোন কোন বিমান ছাড়া যাবে। সে কারনেই আগামী দুইদিনের সব ফ্লাইট তারা বাতিল করেছেন। ভ্রমণেচ্ছু সকলকে তারা অনুরোধ করেছেন পরিকল্পনা পরিবর্তন করতে।

ওয়েবসাইটের তথ্যানুসারে জানা যায়, বিএএলপিএ যুক্তরাজ্যের প্রায় ১০ হাজার পাইলটের প্রতিনিধিত্ব করে। যাদের মধ্যে ৮৫ শতাংশ পাইলট বাণিজ্যিকভাবে উড্ডয়ন করে থাকেন। তাদের মধ্যে ৯৩ শতাংশই এই ধর্মঘটের ব্যাপারে একমত হয়েছেন।

বিএএলপিএ এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, যদি তাদের দাবির ব্যাপারে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ কোন সমাধান দিতে না পারে, তাহলে আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে আবারও ধর্মঘটে যাবেন তারা।

এদিকে, ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ সিএনএনকে জানিয়েছে, পাইলটদের বর্ধিত বেতনভাতার ব্যবস্থা করতে গিয়ে এ বছরেই তারা যাত্রী প্রতি বিমানভাড়া ১১ শতাংশ বাড়িয়েছে। তারপরও পাইলটদের এরকম আচরণ ব্যবসায়ে সংস্থাটির সুনাম নষ্ট করছে।

ট্যাগ: bdnewshour24 ফ্লাইট পাইলট