banglanewspaper

মনির হোসেন জীবন, নিজস্ব প্রতিনিধি: গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলা ও সাভারের আশুলিয়ার সীমান্তবর্তী এলাকা বাড়ইপাড়া। ঘনবসতিপূর্ণ এ এলাকায় নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের পাশে প্রায় এক যুগেরও আগে গড়ে উঠে বিনোদন পার্ক ‘নন্দন পার্ক’। বিনোদন প্রেমীদের চাহিদা পূরণ করে খুব অল্প সময়ের মধ্যেই দেশে-বিদেশে সুনাম খ্যাতি অর্জন করে পার্কটি।

তবে বর্তমান কিছু অসামাজিক কর্মকান্ডের কারণে দীর্ঘদিনের সুনাম খ্যাতি ধুঁয়ে মুছে গেছে বিনোদন পার্ক নন্দনের। এ নিয়ে খোদ নন্দন পার্কের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে। সেই সাথে স্থানীয় এলাকাবাসীও ক্ষোভ জানিয়েছে পার্ক কর্তৃপক্ষের এমন কর্মকান্ডের জন্য।

আর এ সব কিছুর জন্য তারা দায়ী করছেন নন্দন পার্কের বর্তমান চীফ এক্সিকিউটিভ অফিসার (সিইও) অব.প্রাপ্ত লে. কর্ণেল তুষার বিন ইউনুসকে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে নন্দন পার্কের একাধিক কর্মকর্তা ও কর্মচারীর সাথে কথা বলে জানা গেছে, নন্দন পার্কের সিইও হিসেবে তুষার বিন ইউনুস যোগ দেয়ার পরই নন্দন পার্কের সার্বিক পরিস্থিতি খারাপের দিকে চলে যায়। পার্কের অসামাজিক পরিবেশের সৃষ্টি হয় সে আসার পরই।

বিভিন্ন উৎসবকে সামনে রেখে তার অসামাজিক কার্যকলাপের মাত্রা বেড়ে যায়। বেশ কয়েকমাস আগে অসামাজিক কার্যকলাপের দায়ে কয়েকজনকে আটক করা হয়। এ নিয়ে পার্কের কয়েকজন কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা আপত্তি জানালে বাঁধা হয়ে দাঁড়ায় সিইও তুষার বিন ইউনুস। এ নিয়ে মারামারির মত ঘটনাও ঘটে। পরে পুলিশ বিষয়টি নিয়ে সমঝোতা করে।

এর কয়েকমাস যেতে না যেতেই গতকাল (১৩ই সেপ্টেম্বর, শুক্রবার) দুপুরে গাজীপুর জেলা ডিবি ও কালিয়াকৈর থানা পুলিশ পার্কের ভিতর ‘নন্দন ভিলেজ’ কটেজ থেকে অসামাজিক কার্যকলাপে জড়িত থাকার অভিযোগে তিন নারী ও তিন পুরুষকে আটক করে নিয়ে যায়।

তারা আরো জানান, সিইও তুষার বিন ইউনুস তার লোভ লালসার কারণে কটেজ ব্যবসার আড়ালে ছেলে-মেয়েদের দিয়ে অসামাজিক কার্যকলাপ করিয়ে থাকে। এছাড়া বিভিন্ন নেশা জাতীয় দ্রব্যেরও ব্যবস্থা রাখা হয় কটেজে। সিইও তুষার বিন ইউনুসের কারণেই নন্দন পার্কের সুনাম ক্ষুন্ন হয়েছে। সেজন্য তারা সিইও তুষার বিন ইউনুস এর অব্যাহতি চান।

নন্দন পার্কের ভিতর এমন অসামাজিক কার্যকলাপের জন্য স্থানীয় এলাকাবাসীর মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। তারা অবিলম্বে পার্কের ভিতর যাতে কোন ধরণের অসামাজিক কার্যকলাপ না হয় সেজন্য প্রশাসন ও পার্ক সংশ্লিষ্টের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। এরপরও যদি পার্ক কর্তৃপক্ষ অসামাজিক কার্যকলাপ চালিয়ে যায় তাহলে পরবর্তীতে কঠিন ব্যবস্থা নেয়ার হুমকিও জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

তবে এ বিষয়ে সিইও এর সাথে কথা বলেতে চাইলে নন্দন পার্ক কর্তৃপক্ষ প্রবেশাধিকার সংরক্ষিত আছে বলে জানায়।

ট্যাগ: bdnewshour24 নন্দন পার্ক