banglanewspaper

পিরোজপুর প্রতিনিধি: পিরোজপুর সদর উপজেলার ৭৪ নং মধ্য নামাজপুর সরকারি প্রা: বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা নার্গিস খানমকে স্থানী কয়েক জন ব্যক্তি কর্তৃক হয়রানির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে স্থানীয় একটি মহল প্রধান শিক্ষিকা নার্গিস খানমের বিরুদ্ধে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সহ বিভিন্ন স্থানে মিথ্যা কিছু অভিযোগ দেয়া। এর পরিপেক্ষিতে রোববার তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি উক্ত বিদ্যালয়ে গিয়ে প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত করে। 

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা নার্গিস খানম জানান, মধ্য নামাজপুর এলাকায় তার শ^শুরবাড়ি হওয়ার কারণে ব্যক্তিগত কিছু বিরোধের জেড় ধরেই স্থানীয় একটি মহল তার বিরুদ্ধে নানা ভাবে অপপ্রচার চালাচ্ছে। তাকে সামাজিক ও পেশাগত ভাবে হেয়প্রতিপন্ন এবং ক্ষতি করার জন্যই স্থানীয় এই মহলটি ষড়যন্ত্র করে তার বিরুদ্বে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে মিথ্যা অভিযোগ করে। যার কারণে ৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি রোববার সকাল ১১ টায় সেই কমিটি বিদ্যালয়ে এসে তদন্ত কাজ করে যায়। 

 প্রধান শিক্ষিকা নার্গিস খানম অভিযোগ জানান, বিদ্যালয়ের ও বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ক্ষতি করার জন্যই স্থানীয় একটি মহল শিক্ষার্থীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে বিদ্যালয়ের যাইতে নিষেদ করে এবং বাধা প্রদান করে। 

এদিকে কিছু দিন আগে বিদ্যালয়ের ফুলের বাগানর করার জন্য বিদ্যালয়ের সামনে পাচঁটি পিলার করলে তা দুর্বৃত্তরা ভেঙ্গ ফেলায়। যা পিরোজপুর সদর থানায় অবগত করা হয়।

ট্যাগ: bdnewshour24 পিরোজপুর