banglanewspaper

ভালোবাসাকে বয়সের গণ্ডিতে যেমন বেঁধে রাখা যায় না, একইভাবে বয়স গুণে কখনও ভালোবাসা হয় না। কখন কার প্রেমে কার মন মজে তা বলা বড় মুশকিল। নইলে কি আর ষোলকলা সুন্দরীর প্রেমে হাবুডুবু খান ৭০ বছর বয়সী বৃদ্ধ। 

প্রতিবেশী দেশ ভারতের এবার তেমনই এক ঘটনা ঘটেছে। যেখানে দেশটির কাঙ্ক্ষিত নারী বিশ্বচ্যাম্পিয়ন শাটলার পি ভি সিন্ধুর প্রেমে মজেছেন এক পা কবরে থাকা এক বৃদ্ধ। 

ব্যাডমিন্টন কোর্টের রানী সিন্ধুকে বিয়ে করার দাবিতে জেলা প্রশাসকের কাছে একটি হলফনামা জমা দিয়েছেন মালায়সামি নামের ওই বৃদ্ধ। হলফনামায় তার দাবি, সিন্ধুর সঙ্গে তার বিয়ের ব্যবস্থা করতে হবে খোদ প্রশাসনকেই। তা না হলে তিনি ব্যাডমিন্টন তারকাকে অপহরণ করে তার সঙ্গে শুভ পরিণয় সম্পন্ন করবেন।

৭০ বছরের এই বৃদ্ধের নাম মালায়সামি। তামিলনাড়ুর রঙ্গনাথপুরম জেলার এই বাসিন্দার শখ তিনি ব্যাডমিন্টন তারকা পি ভি সিন্ধুকেই বিয়ে করবেন। 

ঘটনাটি ঘটেছে গেল সপ্তাহে। সাধারণত রঙ্গনাথপুরমের জেলা প্রশাসক প্রতি সপ্তাহেই জনতার দরবারে এসে তাদের অভাব অভিযোগের কথা শোনেন। গেল সপ্তাহেও যথারীতি তিনি জনতার দরবারে হাজির হলে সেখানেই মালায়সামি জেলা প্রশাসকের কাছে সিন্ধুকে বিয়ে করার দাবি তুলে একটি আবেদনপত্র দাখিল করেন। 

অদ্ভূত ব্যাপার, সেই আবেদনপত্রে নিজেকে একজন ১৬ বছর বয়সী কিশোর হিসেবে পরিচয় দিয়েছেন ওই মালায়সামি। 

হাতে নিজের ও সিন্ধুর ছবি নিয়ে জনতার দরবারে আসা ওই বৃদ্ধ আবেদনপত্রে লিখেন, হায়দরাবাদের ওই সুন্দরী টেনিস তারকাকে তার খুব মনে ধরেছে। সিন্ধুর ক্যারিয়ার গ্রাফ তিনি খুব ভালোভাবে পর্যবেক্ষণ করেছেন। তাকেই তিনি জীবনসঙ্গী হিসেবে পেতে চান। ৭০ বছরের ওই বৃদ্ধ জানান, তার জন্ম ২০০৪ সালের মার্চ মাসে। 

তবে জেলা প্রশাসন মালায়সামির এই প্রস্তাব কিংবা অপহরণ হুমকিকে নেয়ায়েত রসিকতা বলেই ধরে নিয়েছে। 

ট্যাগ: bdnewshour24 বৃদ্ধ