banglanewspaper

বান্ধবীকে চমকে দিতে পানির নিচে অভিনব উপায়ে বিয়ের প্রস্তাব দিতে চেয়েছিলেন মার্কিন নাগরিক স্টিভ ওয়েবার। সবকিছু ঠিকমতো হলেও শেষ মুহূর্তে সব হিসেব উল্টে গেল। পানির নিচেই মৃত্যুবরণ করেন তিনি। তাঞ্জানিয়ায় ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন ওয়েবার।

স্টিভ ওয়েবার ও তার মেয়ে বন্ধু কেনেশা অ্যান্টোয়াইন পেম্বা দ্বীপের মান্টা রিসোর্টের একটি অর্ধনিমজ্জিত ক্যাবিনে অবস্থান করছিলেন। ভিডিও ফুটেজে দেখা যায় ওয়েবার পানির নিচে থেকে তার মেয়ে বন্ধুকে বিয়ের প্রস্তাব দিচ্ছেন। ওয়েবার হাতে লেখা একটি প্রস্তাব যখন অ্যান্টোয়াইনকে দিচ্ছিলেন তখন তিনি ক্যাবিনের ভেতর থেকে ঘটনার ভিডিও করছিলেন।

ফেসবুক পোস্টে ওয়েবারের মৃত্যুর ঘটনা নিশ্চিত করে অ্যান্টোয়াইন লেখেন যে তিনি ‘আর ঐ গভীর পানি থেকে উঠে আসেন নি’।

মান্টা রিসোর্টের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে ওয়েবার ‘বৃহস্পতিবার দুপুরে আন্ডারওয়াটার রুম থেকে একা ডাইভ করার সময় দূর্ভাগ্যজনকভাবে ডুবে গেছেন’। রিসোর্টটি এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘গভীর দু:খের সাথে আমরা জানাচ্ছি যে বৃহস্পতিবার ১৯শে সেপ্টেম্বর মান্টা রিসোর্টে ভয়াবহ এক দুর্ঘটনা ঘটেছে’।

ওয়েবার এবং অ্যান্টোয়াইন রিসোর্টের আন্ডারওয়াটার রুম চার রাতের জন্য ভাড়া করেন। রুমটি তীর থেকে প্রায় ২৫০ মিটার দূরত্বে অবস্থিত। পানির ১০ মিটার নীচে অবস্থিত ক্যাবিনটির ভাড়া প্রতি রাতে ১৭০০ ডলার।

লুইজিয়ানার ব্যাটন রুজের অধিবাসী ওয়েবার তাদের অবস্থানের তৃতীয় দিনে সাঁতারের পোশাক পরে পানির নীচে নেমেছিলেন হাতে একটি চিরকুট নিয়ে। ভিডিওতে দেখা যায় চিরকুটটির লেখা রুমের ভিতর থেকে ভিডিও করতে থাকা অ্যান্টোয়াইনকে দেখানোর সময় একটি আংটিও বের করেন ওয়েবার। এরপরই সাঁতরে দূরে চলে যেতে দেখা যায় তাকে।

রিসোর্টের প্রধান নির্বাহী সাওস জানান, পানিতে কিছু একটা সমস্যা হয়েছে বলে তার কর্মীরা তাকে জানান, কিন্তু তারা যখন ঘটনাস্থলে পৌঁছান তখন আর কিছুই করার ছিল না।

ফেসবুক পোস্টে অ্যান্টোয়াইন লেখেন, ‘ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে যেটি আমাদের জীবনের শ্রেষ্ঠ দিন হওয়ার কথা ছিল, সেটি সবচেয়ে দু:খজনক দিনে পরিণত হলো’।

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে যে তাঞ্জানিয়ায় মারা যাওয়া ব্যক্তি মার্কিন নাগরিক।

ট্যাগ: bdnewshour24 বিয়ে