banglanewspaper

মনির হোসেন জীবন, নিজস্ব প্রতিনিধি: একসময় এলাকার আর দশটা মানুষের মত স্বাভাবিকভাবে চলতে ফিরতে পারতো মুরাদ। কিন্তু একটি দূর্ঘটনা তার সেই স্বাভাবিকতা শেষ করে দিয়েছে। দুর্ঘটনায় তার মেরুদন্ডে প্রচন্ড আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে এখন শয্যাসায়ী।

বর্তমানে তার নাভির নীচ থেকে কোন অনুভুতি নেই। স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে হলে তাকে দুটি অপারেশন করাতে হবে। যার জন্য প্রায় আড়াই লক্ষ টাকা প্রয়োজন। এজন্য সমাজের বিত্তবানদের কাছে সাহায্য চেয়েছেন তিনি।

২০১৬ সালে সাভারের আশুলিয়ার নলাম-শিমুলিয়া আঞ্চলিক সড়কে মোটরসাইকেল দূর্ঘটনায় তার মেরুদন্ডের হাড় ভেঙ্গে যায় যা ডাক্তারি ভাষায় (স্পাইনাল কড) ঘাঁ এর সৃষ্টি হয়েছে।

রাজধানীর পঙ্গু হাসপাতাল, সাভারের গণস্বাস্থ্য সমাজ ভিত্তিক হাসপাতাল এবং শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব কেপিজে বিশেষায়িত হাসপাতাল ও নাসিং কলেজে চিকিৎসা করিয়েছেন। এরই মধ্যে গ্রামের বাড়ি থেকে জমিজমা বিক্রির ও জমানো টাকা শেষ হয়েছে চিকিৎসা করাতে গিয়ে।

সাংসারিক জীবনে তার বাবা-মা, স্ত্রী ও ৫ বছরের একটি মেয়ে রয়েছে। বর্তমানে তার নাভির নীচ থেকে কোন অনুভুতি নেই। এরই মধ্যে তার চিকিৎসকরা জানিয়েছেন খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে আরো দুটি অপারেশন করাতে হবে। কিন্তু ওই অপারেশন দুটি করাতে প্রায় আড়াই লাখ টাকার প্রয়োজন।

চিকিৎসা করাতে গিয়ে গেল তিন বছরে তার ও তার পরিবারের সবকিছু প্রায় শেষ। এখন এতগুলো টাকা তার পক্ষে জোগার করা সম্ভব নয়। তাই সমাজ তথা দেশের বিত্তবানদের কাছে সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন তিনি।

সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা, সোনালী ব্যাংক, সাভার শাখা হিসাব নং-০৪৪৩০৩৪৩৩৯০০৯। বিকাশ নাম্বার (পার্সোনাল) ০১৯৮২৬২৩৩৫২ রোগীর নিজের।  
সমাজ তথা দেশের বিত্তবানদের একটু সহযোগীতা হয়তো আবার স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে পারবে মুরাদ।

ট্যাগ: bdnewshour24 লাখ টাকা জীবন