banglanewspaper

প্রায় ২৭ বছর পর কাউন্সিলের মাধ্যমে নির্বাচিত হওয়া ছাত্রদলের নতুন কমিটির কার্যক্রমের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে ঢাকার জেলা জজ আদালত।

সোমবার ওই আদালতের চতুর্থ সহকারী জজ নুসরাত সাহারা বীথি এই আদেশ দেন।

একই সঙ্গে ছাত্রদলের বর্তমান সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন ও সাধারণ সম্পাদক মো. ইকবাল হোসেন শ্যামলকে কমিটির কার্যক্রমের ওপর কেন স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা দেয়া হবে না সে মর্মে সাত দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর জন্যও নির্দেশ দিয়েছেন।

সংগঠনটির সদ্যবিদায়ী কেন্দ্রীয় কমিটির ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আমান উল্লাহর একটি আবেদনের শুনানি শেষে বিচারক এই আদেশ দেন।

গত ৩ জুন ছাত্রদলের মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি ভেঙে দিয়ে কাউন্সিলের মাধ্যমে প্রত্যক্ষ ভোটে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নেয় বিএনপি। গত ১৫ জুলাই কাউন্সিলের তারিখ ঠিক হলেও সংগঠনের একটি গ্রুপের বিক্ষোভের মুখে তা বাতিল করে ১৪ সেপ্টেম্বর পিছিয়ে নেওয়া হয়। কিন্তু এক সাবেক ছাত্রদল নেতার মামলায় আটকে যায় ভোট।

পরে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান দলের সিনিয়র নেতা ও আইনজীবীদের পরামর্শে ১৮ সেপ্টেম্বর নির্বাচনের সিদ্ধান্ত দেন। পুলিশি হয়রানির ভয়ে বিএনপির নেতা মির্জা আব্বাসের বাসায় রাতভর ভোটে ফজলুর রহমান খোকন সভাপতি ও ইকবাল হোসেন সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।

আদালতের নিষেধাজ্ঞা প্রসঙ্গে মামলার বাদীর আইনজীবী সাত্তার উল্লাহ জানান, গত ১২ সেপ্টেম্বর বাদীর আবেদনে কাউন্সিলের ওপর অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। পাশাপাশি বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ ১০ জনকে সাত দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দেন। ওই স্থগিতাদেশ থাকার পরও গত ১৯ সেপ্টেম্বর কাউন্সিল করে ছাত্রদলের কমিটি গঠন হয়। তাই সোমবার বাদী ছাত্রদলের নতুন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে মামলাটিতে ১৩ ও ১৪ নম্বর বিবাদী হিসেবে অর্ন্তভুক্ত করার আবেদন করেন। একই সঙ্গে কমিটির কার্যক্রমের ওপর নিষেধাজ্ঞারও আবেদন করলে আদালত তা মঞ্জুর করেন।

এদিকে ছাত্রদলের নবনির্বাচিত কমিটির কার্যক্রমের ওপর অন্তর্বর্তীকালীন নিষেধাজ্ঞার আদেশ বেআইনি হয়েছে উল্লেখ করে ঢাকা বারের সাবেক সভাপতি বিএনপিরপন্থি আইনজীবী বোরহান উদ্দিন বলেন, ‘রবিবার আমরা মামলাটিতে বিএনপির পক্ষে বিবাদীদের পক্ষে ওকালতনামা দিয়ে আপত্তি দাখিলের জন্য সময় চাই। আদালত ১৪ অক্টোবর পর্যন্ত সময় মঞ্জুর করেন। সোমবার আমার জুনিয়ররা ওই আদালতে উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু আদালতের কর্ম সময়ের মধ্যে কোনো আবেদন পড়েনি। সন্ধ্যার সময় শুনলাম নিষেধাজ্ঞার আদেশ হয়েছে।’

আইনজীবী বলেন, ‘আমরা যখন ওই মামলায় ওকালতনামা দিয়েছি তখন আমাদের না শুনে আদালত কোনো আদেশ দিতে পারেননি। তাই আদেশটি বেআইনি হয়েছে।’

ট্যাগ: bdnewshour24 ছাত্রদল