banglanewspaper

ভারতে আবারও গরু জবাইয়ের গুজব তুলে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও দু’জন। রোববার( ২৩ সেপ্টেম্বর) ঝাড়খণ্ডের সুয়ারি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় পুলিশের বরাত দিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো জানায়, হত্যাকাণ্ডের শিকার কালান্তার্স বার্লা নামের ওই ব্যক্তি ঝাড়খণ্ডের খুঁটির জলটাঙা গ্রামের বাসিন্দা। গ্রামবাসীদের একাংশের অভিযোগ, ওই ব্যক্তিসহ আরো দু’জনের বিরুদ্ধে গরু জবাই করার অভিযোগ তোলা হয়।

তারপর তাদের ওপর হামলা চালানো হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর সেখানেই বার্লাকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। বাকি দু’জন এখনও চিকিৎসাধীন।

স্থানীয় এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, সহিংসতার ঘটনায় কথিত গোরক্ষকদের ব্যাপারে তদন্ত করা হচ্ছে। চারজনের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ, হত্যাচেষ্টার অভিযোগ আনা হয়েছে। এছাড়া দাঙ্গার অভিযোগ আনা হয়েছে আরো ১৫-১৮ জনের বিরুদ্ধে। পুলিশ সুপার আশুতোষ শেখর বলেন, আমরা অভিযান চালাচ্ছি। তাদের গ্রেফতার করা হবে।

মোদি সরকার ক্ষমতায় আসীন হওয়ার পর থেকেই গরু নিয়ে বিভিন্ন গুজব তুলে মুসলিমদের ওপর হিন্দুত্ববাদী নিপীড়ন-নির্যাতন ও হত্যাকাণ্ড শুরু হয়।

২০১৫ সালের ২৮ সেপ্টেম্বরে ভারতের উত্তর প্রদেশের দাদরি এলাকায় গরুর মাংস সংরক্ষণের গুজবে মোহাম্মদ আখলাককে পিটিয়ে হত্যা করে গ্রামবাসী। এর ধারাবাহিকতায় এখনও সেখানে গরুকে হিন্দুত্ববাদী অস্ত্র বানিয়ে মুসলিম নিপীড়ন অব্যাহত রয়েছে।

ট্যাগ: bdnewshour24 ভারত গরু জবাই পিটিয়ে হত্যা