banglanewspaper

কারওয়ান বাজার এলাকার সড়ক ও ফুটপাতে অবৈধ দখল রুখতে পুলিশ ফাঁড়ি বসানোর উদ্যোগ নিয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি)। উদ্ধার করা সিটি করপোরেশনের জায়গায় ফাঁড়ি বসানো হবে বলে জানিয়েছেন মেয়র আতিকুল ইসলাম।

বৃহস্পতিবার কারওয়ান বাজার এলাকার বিভিন্ন স্থানে ফুটপাত ও সড়ক দখল করে গড়ে ওঠা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান পরিদর্শনে গিয়ে তিনি এ তথ্য জানান।

কয়েক বছর ধরে সিটি করপোরেশনের ভবন দখল করেছিল ‘কারওয়ান বাজার প্রগতি সংঘ’ নামে একটি ক্লাব। বৃহস্পতিবার উচ্ছেদ অভিযানের মধ্য দিয়ে ভবনটিকে পুনরায় নিজেদের দখলে নেয় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। সেই সঙ্গে ওই ভবনে পুলিশ ফাঁড়ি নিয়ে বসানো উদ্যোগ নেওয়া হয় ডিএনসিসির পক্ষ থেকে। উচ্ছেদ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এমনটা উত্তরের মেয়র।

আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘আমাদের সিটি করপোরেশনের একটি বাড়ি দীর্ঘদিন একটি ক্লাব দখল করে রেখেছিল। আমরা সেই ক্লাব অপসারণ করেছি, সেখানে পুলিশ ফাঁড়ি করা হবে। পুলিশ চাইলে আমি আজই হস্তান্তর করতে পারি।’

মেয়র বলেন, ‘আমাকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কারওয়ান বাজারে পুলিশের একটি ফাঁড়ি করে দিতে বলেছেন। আমি ডিএমপির সঙ্গে বসেছি, তাদের দীর্ঘদিনের দাবি একটি পুলিশ ফাঁড়ির। আমি দেখেছি, আমাদের একটি বাড়ি যেটা দীর্ঘদিন কোনো একটি ক্লাব দখল করে রেখেছিল, সেটি অপসারণ করেছি। আমরা সেই বাড়ির একতলা, দোতলা পুলিশ ফাঁড়ির জন্য ব্যবহার করতে পারব। পুলিশ চাইলে আমি আজই বুঝিয়ে দিতে পারি। আমি চাই পুলিশ উঠুক, কাজ শুরু করুক।'

সকালে ডিএনসিসি নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ার, প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম ও সগির হোসেনের নেতৃত্বে উচ্ছেদ অভিযানটি পরিচালিত হয়।

অভিযানে ফুটপাত দখল করে রাখা ২৬ নম্বর ওয়ার্ড শ্রমিক লীগের একটি কার্যালয়সহ শতাধিক ছোট-বড় স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। যা ফুটপাত ও রাস্তা দখল করে অবৈধভাবে নির্মাণ করা হয়েছিল।

ট্যাগ: bdnewshour24 ক্লাব কারওয়ান বাজার পুলিশ ফাঁড়ি