banglanewspaper

রাণীনগর (নওগাঁ) প্রতিনিধি: বাড়ির সামনে বাড়ি করা ও দাবিকৃত সম্পত্তি না দেওয়ায় নওগাঁর রাণীনগরের ঝিনা গ্রামে মন্টু প্রামানিকের নির্মাণাধীন বাড়ি দিনদুপুরে স্বপনের নেতৃত্বে ৫০/৬০ জন সন্ত্রাসীকে নিয়ে এসে হাঁসুয়া, লাঠি, গ্রিল মেশিন নিয়ে সন্ত্রাসী কায়দায় ভেঙ্গে দেওয়া হয়েছে।

এ সময় বাড়ির আলমারিতে থাকা নগদ ৭ লাখ টাকা ও প্রায় ৫ ভরি স্বর্ণালঙ্কার লুটপাট করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এনিয়ে এলাকায় চরম উত্তেজনা দেখা দিয়েছে গ্রামে।

ক্ষতিগ্রস্থ মন্টু প্রামানিক ঝিনা পূর্বপাড়া গ্রামের মৃত লাল প্রামানিকের ছেলে। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার গোনা ইউনিয়নের ঝিনা পূর্বপাড়া গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটেছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ যাওয়ার আগে বহিরাগত সন্ত্রাসীরা সেখান থেকে পালিয়ে যায়। তবে বিকেল পর্যন্ত এ ঘটনায় কোন আসামীকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। 

জানা গেছে, মন্টু প্রামানিকের পৈত্রিক সম্পত্তিতে গত দুই মাস আগে ইটের বাড়ি নির্মাণ করা শুরু করেন। এ সময় প্রতিবেশি শাহাদত আহম্মেদ স্বপনের দু’তলা ইটের বাড়ির রাস্তা থেকে দেখা যাবে না বলে ওই জায়গাটি তার কাছে এওয়াজ বদল করার জন্যে মন্টুকে চাপ শুরু করেন।

তারপরও মন্টু তার প্রস্তাবে রাজি না হয়ে ওই সম্পত্তির উপর আরসিসি দিয়ে বাড়ি কাজ শুরু করেন। ঘরের ছাদ ঢালাই দেবেন এমন তথ্যে পেয়ে ছাদ যেন দিতে না পারেন এ জন্যে ক্ষিপ্ত হয়ে স্বপনের নেতৃত্বে বৃহস্পতিবার দুপূরে ভাড়া করা বহিরাগত ৫০/৬০ জন সন্ত্রাসীকে নিয়ে এসে হাঁসুয়া, লাঠি, গ্রিল মেশিন নিয়ে সন্ত্রাসী কায়দায় বাড়ি ভেঙ্গে দিয়েছে।

মন্টুর ছোট ভাই ওসমান গণি লেবু জানান, স্বপনকে ওই সম্পত্তি না দেওয়ায় স্বপনের নেতৃত্বে ভাড়া করা বহিরাগত ৫০/৬০ জন সন্ত্রাসীকে নিয়ে এসে হাঁসুয়া, লাঠি, গ্রিল মেশিন নিয়ে সন্ত্রাসী কায়দায় বাড়ির আরসিসি, ইটের প্রাচীর ভেঙ্গে দিয়েছে। 

ক্ষতিগ্রস্থ মন্টু প্রামানিক জানান, তারা পাশের গ্রামে বিয়ের একটি অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন। এ সময় বাড়ির ভাঙ্গার সংবাদ পেয়ে ছুটে আসেন। এসে দেখেন বাড়ির আটটি আরসিসি পিলার, ইটের প্রাচীর, ছাদ দেওয়ার সাটারিং ভাঙ্গা। এরপর পুরাতন বাড়ির ঘরের মধ্যে গিয়ে দেখি ঘরের মধ্যে থাকা আলমারি ভেঙ্গে ফেলে নগদ ৭ লাখ টাকা ও প্রায় ৫ ভরি স্বর্ণালঙ্কার লুটপাট করে নিয়ে গেছে তারা। এ ঘটনায় দ্রুত তদন্ত করে আসামীদের গ্রেফতারের দাবি জানান তিনি। 

অভিযুক্ত শাহাদত আহম্মেদ স্বপন বলেন, তাদের কাছ থেকে এক শতক জমি ৫ বছর আগে কেনা হয়েছে। তাদের বাড়ির সামনে রাস্তার জন্যে ওই জয়গা চাইলেও তারা না দিয়ে জোর করে বাড়ি শুরু করেন। এমতাবস্তায় বিজ্ঞ আদালতে ১৪৪ ধারায় নিষেধাজ্ঞা থাকা স্বত্তেও জোর করে বাড়ি শুরু করেন। এ ঘটায় তার সুবাকাঙ্খিরা বাড়িঘর ভাংচুর করেছে। কোন সন্ত্রাসীরা নয়। টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার লুটপাটের ঘটনাটি সত্য নয়।

এ ব্যাপারে রাণীনগর থানার ওসি জহুরুল হক বলেন, ‘বাড়ি ভাংচুরের সত্যতা পাওয়া গেছে। তবে ঘটনাস্থলে পৌঁছার আগে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যাওয়ায় তাদের আটক করা সম্ভব হয়নি। এঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।’

ট্যাগ: bdnewshour24 রাণীনগর