banglanewspaper

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ও তার প্রতিনিধিদলকে বহনকারী বিমানে কারিগরি ত্রুটি দেখা দেয়ার পর বিমানটি আবার নিউইয়র্কে ফিরে গেছে। রেডিও পাকিস্তানের বরাত দিয়ে ইংরেজি দৈনিক এক্সপ্রেস ট্রিবিউন এ খবর দিয়েছে।

জানা গেছে, জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৪তম বার্ষিক অধিবেশনে যোগদান এবং যুক্তরাষ্ট্র সফরের পর ইমরান খান দেশে ফেরার জন্য নিউইয়র্ক থেকে ইসলামাবাদের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন। কিন্তু তাকে বহনকারী বিমানটিতে কারিগরি ত্রুটি দেখা দেয়। বিমানটি যখন কানাডার টরেন্টো শহরের কাছাকাছি ছিল তখন তাতে সমস্যা দেখা দেয়। তবে সমস্যা তেমন বড় কিছু ছিল না।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর রাজনীতি বিষয়ক বিশেষ সহকারি নাসিমুল হক জানান, নিউইয়র্কে ইমরান খান আরও একটি রাত কাটাবেন; এরইমধ্যে বিমানটি ঠিক করার চেষ্টা চালানো হবে।

জাতিসংঘে দেয়া ভাষণে ইমরান খান আন্তর্জাতিক অঙ্গনের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু তুলে ধরেছেন। এর পাশাপাশি তিনি কাশ্মীর ইস্যুতে ভারতের বাজারকে ইঙ্গিত করে বলেছেন, ১২০ কোটি মানুষের বাজারকে আন্তর্জাতিক সমাজ বিবেচনায় নেবে নাকি ন্যায় বিচার ও মানবতাকে ঊর্ধ্বে তুলে ধরবে তা তাদেরকে সম্প্রদায়কে ঠিক করতে হবে।

ইমরান খান পরিষ্কার করে বলেন, আপনারা কি মনে করেন ভারতের সংবিধানের ৩৭০ নং ধারা বাতিল করে কাশ্মীরের যে মর্যাদা ক্ষুন্ন করা হয়েছে তা সেখানকার জনগণ মেনে নেবে? তিনি বলেন, এক লাখ কাশ্মীরি নিহত হয়েছে, হাজার হাজার নারী ধর্ষিতা হয়েছে- এগুলো জাতিসংঘের রিপোর্টে প্রকাশ হয়েছে। এরপর ইমরান খান দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, আন্তর্জাতিক সমাজের সবাই এসব তথ্য জানে। তারপরেও ভারতের বিশাল বাজারের কথা চিন্তা করে সবাই চুপ থাকে।

জাতিসংঘে ইমরান খানের ভাষণের পর তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে ভারত।

ট্যাগ: bdnewshour24 বিমান