banglanewspaper

মনির হোসেন জীবন, নিজস্ব প্রতিনিধি : সাভারের আশুলিয়ায় হানিফ বাস কাউন্টারম্যান রবিউল ইসলামের হত্যাকান্ডের ৭২ ঘন্টার মধ্যে রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের সিসি টিভি ক্যামেরার ফুটেজের মাধ্যমে এ হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটন করে এবং হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ৩ ডাকাতকে আটক করা হয়। 

রোববার সকালে আশুলিয়ায় থানা পুলিশ এ তথ্য নিশ্চিত করেন। এরআগে শনিবার রাতে তাদের সাভারের হেমায়েতপুর থেকে অভিযান চালিয়ে আটক করা হয়। এসময় ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত বাসও উদ্ধার করা হয়।

আটককৃতরা হলো- ঢাকার সাভারের জয়নাবাড়ি এলাকার নূর আলমের ছেলে সজিব হোসেন, একই এলাকার আবদুল গিয়ানের ছেলে মো. রবিউল এবং খুলনার দিঘলিয়া থানাধীন সেনাটি এলাকার মৃত. আলম খাঁর ছেলে কবির হোসেন ওরফে রুবেল। এরা দিনে বিভিন্ন কারখানার শ্রমিক আনা নেয়ার কাজ করে এবং রাতে যাত্রী বেশে ডাকাতি করে।  

আশুলিয়া থানার ইন্সপেক্টর (ইন্টিলিজেন্স) মো. তছলিম উদ্দিন জানান, যাত্রী বেশে বাসে ডাকাতির কবলে পড়েন রবিউল। এসময় তিনি নিজেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য পরিচয় দেন। পরে ডাকাতরা তাকে হত্যা করে মহাসড়কের পাশে ফেলে দেয়। এঘটনায় বাকী ডাকাতদের আটকের চেষ্টা চলছে।

প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের মুল ফটকের বিপরীতে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের পাশ থেকে রবিউল ইসলামের মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে অজ্ঞাতদের আসামী করে নিহতের মা বাদী হয়ে আশুলিয়া থানা একটি মামলা দায়ের করেন।
 

ট্যাগ: bdnewshour24 সাভার