banglanewspaper

ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যা মামলার রায় আগামী ২৪ অক্টোবর দিন ধার্য করেছেন আদালত।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ হয়। আজ সোমবার আসামি ও বাদীপক্ষের আইনজীবীরা আদালতে তাঁদের যুক্তিতর্কের প্রতিউত্তর শেষ করেন। এর পর বিচারক রায়ের দিন ঘোষণা করেন। মামলার বিচার শুরুর ৬২ কার্যদিবসে এর নিষ্পত্তির সব আনুষ্ঠানিকতা শেষ হয়েছে।

আজ সকালে কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে নুসরাত হত্যা মামলার ১৫ আসামিকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়। আসামি কামরুন নাহার মনি সন্তান জন্ম দেওয়ার কারণে হাসপাতালে থাকায় আদালত তাঁর হাজিরা মওকুফ করেছেন।

গত ২৯ মে ফেনীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জাকির হোসেনের আদালতে ১৬ জনকে অভিযুক্ত করে ৮০৮ পৃষ্ঠার অভিযোগপত্র দেন নুসরাত হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) পরিদর্শক মো. শাহ আলম। 

অভিযোগপত্রভুক্ত ১৬ আসামির মধ্যে ১২ জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। ৩০ মে মামলাটি ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে স্থানান্তর করা হয়। ১০ জুন আদালত মামলাটি আমলে নিলে শুনানি শুরু হয়। ২০ জুন অভিযুক্ত ১৬ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন বিচারিক আদালত। এর পর ২৭ ও ৩০ জুন মামলার বাদী ও নুসরাতের ভাই মাহমুদুল হাসান নোমানকে জেরার মধ্য দিয়ে এ মামলার বিচারকাজ শুরু হয়। এর পর মোট ৯২ সাক্ষীর মধ্যে ৮৭ জনের সাক্ষ্য নেন আদালত।

গত ১০ এপ্রিল রাত সাড়ে ৯টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে নুসরাত মারা যান। এ ঘটনায় নুসরাতের বড় ভাই মাহমুদুল হাসান নোমান বাদী হয়ে ৮ এপ্রিল সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা করেন।

ট্যাগ: bdnewshour24 নুসরাত