banglanewspaper

মনির হোসেন জীবন, নিজস্ব প্রতিনিধি: গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার আটাবহ ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এম এ আলীমের বিরুদ্ধে অত্যাচার, নির্যাতন ও প্রান নাশের হুমকির অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ওই ইউনিয়নের স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক শাহরিয়ার সুজন।

সোমবার দুপুরে কালিয়াকৈর প্রেসক্লাবের হলরুমে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এসময় লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ওই স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা।

লিখিত বক্তব্য সূত্রে জানা যায়, কালিয়াকৈর উপজেলার আটাবহ ইউনিয়নের প্রধান আঞ্চলিক সড়ক বাড়ইপাড়া-গোসাত্রা-মহরাবহ সড়কে চলাচলরত সিএনজি অটোরিকশার ভাড়া বৃদ্ধির প্রতিবাদে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন শাহরিয়ার সুজন। এ স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে আটাবহ ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান এম এ আলীমের সাথে সুজনের বিরোধের সৃষ্টি হয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে চেয়ারম্যান আলীম ও তার লোকজন সুজনকে বিভিন্নভাবে হুমকি, বাড়িতে হামলাসহ নানা ভাবে হয়রানী করে।

এক পর্যায়ে চেয়ারম্যান আলীম কালিয়াকৈর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আতিকুর রহমান রাসেলকে দিয়ে থানায় নিয়ে আসে সুজনকে। পরে থানায় আটকে মামলার ভয়ভীতি দেখিয়ে সুজনকে ছেড়ে দেয়ার কথা বলে সুজনের মার কাছ থেকে সাদা কাগজে স্বাক্ষর নেয়। পরে রাত ৯টার দিকে সুজনকে ছেড়ে দেয়া হয়।

এদিকে, ওই সংবাদ সম্মেলনে বুলবুল নামের অপর আরেকজন যুবককে আলীম চেয়ারম্যানের লোকজন একটি মামলা থেকে নাম বাদ দেয়ার কথা বলে ২০ হাজার টাকা দাবী করে। এ ঘটনায় গাজীপুরের পুলিশ সুপারের নাম ভাঙ্গিয়ে এ টাকা চাওয়া হয় বলে দাবী করেন ভুক্তভোগী। পরে একপ্রকার বাধ্য হয়ে ১০ হাজার টাকা দিলেও বাকী টাকার জন্য চাঁপ দিতে থাকে চেয়ারম্যানের লোকজন।

ফলে নিরুপায় হয়ে আটাবহ ইউনিয়নের স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা সুজন ও বুলবুল বিষয়গুলো নিয়ে গাজীপুরের পুলিশ সুপারের নিকট জানালে তিনি লিখিত অভিযোগ দিতে বলেন। পরে লিখিত আকারে অভিযোগ করলে ওই পত্রে সুপারিশ করে তদন্ত করে সঠিক ব্যবস্থা নেয়ার জন্য কালিয়াকৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) নিকট পাঠায়।

পরে গত ২২ সেপ্টেম্বর পুলিশ সুপারের স্বাক্ষরিত অভিযোগ পত্রটি কালিয়াকৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতার্র নিকট জমা দেওয়া হলেও কালিয়াকৈর থানা পুলিশ এখনো কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না বলে দাবী করেন সুজন ও ভুক্তভোগী বুলবুল।

এ বিষয়ে আটাবহ ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক শাহরিয়ার সুজন বলেন, গাজীপুর পুলিশ সুপারের নিকট অভিযোগ দেওয়ার কথা জানার পর আরও ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে চেয়ারম্যান আলীম। দলবল নিয়ে বাড়ীতে গিয়ে অকথ্য ভাষায় গালাগাল ও প্রান নাশের হুমকি দিয়ে আসে। এরপর থেকে নিরাপত্তাহীনতায় আছেন তিনিসহ পরিবারের সদস্যরা।
 

ট্যাগ: bdnewshour24 গাজীপুর