banglanewspaper

বারবার লক্ষ্যের দ্বারপ্রান্ত থেকে ফিরে এসে হাল না ছাড়া আর্জেন্টাইন মহাতারকা লিওনেল মেসিকে রাজা রবার্ট ব্রুসের সাথে আংশিক তুলনা করা যেতেই পারে। ব্রুস রাজ্য জয় করার সুযোগ পেলেও মেসি হয়তো কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছানোর সময়টুকু পাবেন না। আসন্ন কোনো বড় শিরোপা প্রতিযোগিতার আগেই সম্ভবত মেসির ফুটবল অধ্যায়ের সমাপ্তি ঘটবে।

সবশেষ কোপা আমেরিকার সেমিফাইনালে ব্রাজিলের কাছে হেরে বিদায় নেয় আর্জেন্টিনা। তাতে আরও দীর্ঘ হয়েছে মেসি ও শিরোপার দূরত্ব। সেমিতে হারের পর মেসির নেতা সুলভ আচরণে মুগ্ধ তার সতীর্থরা। তার অনুপ্রেরণামূলক বক্তব্যে আবেগতাড়িত হয় আর্জেন্টিনা দলের ফুটবলাররা। হারের গ্লানি নিয়ে মেসির বক্তব্যে চোখের অশ্রু ধরে রাখতে পারেননি তারা। এমনটাই জানিয়েছেন অ্যাঙ্গেল দি মারিয়া।

১৯৯৩ সাল থেকে ২০১৯, দীর্ঘ এই ২৬ বছরে অনেক প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে ফাইনাল খেললেও শিরোপার উষ্ণ ছোঁয়া পায়নি আলবেসেলিস্তেরা। মেসির নেতৃত্বে শেষবার কোপা আমেরিকার সেমিতে গিয়েছিল আর্জেন্টিনা। কিন্তু ছয়বারের বর্ষসেরা এই মহা তারকার দলীয় প্রাপ্তির ঝুলিটা এখনো ফাঁকাই রয়ে গিয়েছে। আন্তর্জাতিক ফুটবলে মেসির প্রাপ্তি বলতে একবার যুব ফুটবল বিশ্বকাপের শিরোপা অর্জন।

মেসির নেতৃত্বে সন্তুষ্ট পিএসজি উইঙ্গার অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। কোপার সেমিতে ব্রাজিলের সাথে ২-০ গোলে হারার পর সাজঘরে সতীর্থদের উদ্দেশ্যে মেসির অনুপ্রেরণাদায়ক বক্তব্যে অভিভূত ডি মারিয়া।

সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মেসির প্রশংসায় পঞ্চমুখ ডি মারিয়া। তিনি বলেন, ‘হারের পর সাজঘরে মেসি অনেক অনুপ্রেরণামূলক কথা বলেছিল। সে বলেছিল, কোপা আমেরিকায় আমরা যারা খেলছি তারা খুব বেশিদিন একসাথে খেলোর সুযোগ পাইনি। তবে মনে হচ্ছিল, যেন আমরা অনেক বছর যাবৎ একসাথে খেলছি। তরুণ খেলোয়াড়রা তাদের উজাড় করে খেলা উপহার দিয়েছে এবং তারা জাতীয় দলে খেলার যোগ্য।’ 

আবেগপ্রবণ দলকে নিয়ে মারিয়া বলেন, ‘মেসির এমন সুন্দর হৃদয় ছুঁয়ে যাওয়া বক্তব্যে খেলোয়াড়দের কেউই অশ্রু সংবরণ করতে পারেননি।’

মেসি নামের পাশে কিংবদন্তি লাগানোর জন্য কোনো বড় শিরোপা মাপকাঠি হতে পারে না। জীবন্ত এই কিংবদন্তি বার্সেলোনার হয়ে অসংখ্য শিরোপা জিতেছেন, ব্যক্তিগত অর্জনে তার চেয়ে বেশি কেউ নেই। তবে জাতীয় দলের হয়ে অর্জন না করতে পারার আক্ষেপ তাকে সারাটা জীবন পোড়াবে।

ট্যাগ: bdnewshour24 মেসি