banglanewspaper

ভারতে মোট ৭৯ দশমিক ৮ শতাংশ মানুষ হিন্দু ধর্মাবলম্বী হওয়া সত্ত্বেও সংখ্যার বিচারে ভারতের সাতটি রাজ্যে কিন্তু তারাই সংখ্যালঘু। জেনে নিন সেই রাজ্যগুলোর কথা। 

জম্মু ও কাশ্মীর
উত্তর ভারতের জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যে মোট জনসংখ্যার ৬৮ দশমিক ৩ শতাংশ মানুষ ইসলাম ধর্মাবলম্বী। ফলে, রাজ্যের ২৮ দশমিক ৪ শতাংশ হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা সেখানে সংখ্যালঘু।

পাঞ্জাব
পাঞ্জাবে সংখ্যাগরিষ্ঠের ধর্ম শিখ ধর্ম। মোট জনসংখ্যার ৫৭ দশমিক ৭ শতাংশ মানুষ এই ধর্ম অনুসরণ করেন। সেখানকার ৩৮ দশমিক ৪ শতাংশ হিন্দু, তাই তারাই সংখ্যালঘু।

লাক্ষাদ্বীপ
লাক্ষাদ্বীপের মোট ৯৬ দশমিক ২ শতাংশ মানুষই নিজের পরিচয় দেন মুসলমান হিসাবে। সেখানে হিন্দু জনসংখ্যা মাত্র আড়াই শতাংশ!

মিজোরাম
লাক্ষাদ্বীপের মতো মিজোরামের চিত্রও প্রায় একই। হিন্দু জনসংখ্যা সেখানে ২ দশমিক ৭ শতাংশ। অন্যদিকে, ৮৭ শতাংশ মানুষ সেখানে খ্রিস্টান ধর্মের অনুসারী। রয়েছেন সাড়ে আট শতাংশের কাছাকাছি বৌদ্ধও।

নাগাল্যান্ড
‘সবচেয়ে বেশি ব্যাপটিস্ট রাজ্য’ নামে খ্যাত নাগাল্যান্ডের মোট জনসংখ্যার মাত্র ৮ দশমিক ৭ শতাংশ হিন্দু ধর্মের অন্তর্গত। স্বাভাবিকভাবেই, সেখানে খ্রিস্টান রয়েছেন ৮৮ শতাংশ।

অরুণাচল প্রদেশ
উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলিতে হিন্দুদের সংখ্যালঘু হওয়ার ধারা অরুণাচল প্রদেশেও অব্যাহত। এখানে হিন্দুদের মোট সংখ্যা অন্যান্য রাজ্যের তুলনায় বেশি, প্রায় ২৯ শতাংশের কাছাকাছি। অল্পের জন্য এগিয়ে সংখ্যাগরিষ্ঠের তকমা জুটেছে খ্রিষ্টানদের, যারা মোট জনসংখ্যার ৩০ শতাংশ। রয়েছেন ২৬ শতাংশ ‘দোনয়ি পোলো’ নামের আদিবাসী ধর্মানুসারীরাও।

মেঘালয়
মেঘালয়ের ১১ দশমিক ৫৩ শতাংশ মানুষ হিন্দু ধর্মের অনুসারী। মাতৃতান্ত্রিক সামজব্যবস্থায় চলা এই রাজ্যের মোট ৭৫ শতাংশ মানুষ খ্রিষ্টান।

সূত্র: ডয়চে ভেলে

ট্যাগ: bdnewshour24 ভারত