banglanewspaper

ভর্তি পরীক্ষার জন্য ১৩ ও ১৪ অক্টোবর বুয়েটের আন্দোলন শিথিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। ভর্তি পরীক্ষার পর আবারও তারা সমবেত হয়ে আন্দোলনে নামবেন।

শনিবার দুপুরে বুয়েট ক্যাম্পাস ক্যাফেটেরিয়ার সামনে এমন সিদ্ধান্তের কথা জানান শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীরা জানান, বুয়েটে ভর্তি পরীক্ষার জন্য ১৩ ও ১৪ অক্টোবর দুই দিন বুয়েটে আন্দোলন শিথিল করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে আন্দোলন স্থগিত করা হয়নি। ভর্তি পরীক্ষার পর আবারও আন্দোলনে নামবেন তারা।

আন্দোলনকারীরা জানান, ‘আমরা যেসব শর্ত প্রশাসনকে দিয়েছিলাম তারা ইতিমধ্যে তা নিয়ে কাজ করছে। বেশ কিছু বিষয় লিখিত আকারে দেয়া হয়েছে। আর যেহেতু ভর্তির ব্যাপারে সহযোগিতার কথা বলা হয়েছে সে হিসেবে আমরা রবিবার ও সোমবার শুধু ভর্তির জন্য আন্দোলন শিথিল করলাম। এইসময়ে আমাদের পরবর্তী করণীয় কি হবে সে ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেব।’

সাধারণ শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে ভর্তিচ্ছু ও অভিভাবকদের সর্বোচ্চ সহযোগিতা করা হবে বলেও জানান তারা।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ইতিমধ্যে বুয়েটের তিতুমীর হলে সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানো হচ্ছে। আহসান উল্লাহ হলে যেসব ক্যামেরা নষ্ট ছিল তা ঠিক করা হচ্ছে।

বুয়েট প্রশাসনের উদ্দেশে শিক্ষার্থীরা বলেন, আমরা চাই না আন্দোলন করতে। আশা করি আপনারা আমাদের যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তা যথাযথভাবে রক্ষা করবেন। বিশ্বাস ভঙ্গ করবেন না।

আবরার ফাহাদ হত্যার পর থেকে এ বিষয়ে নজর রাখার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকেও ধন্যবাদ জানান শিক্ষার্থীরা। আন্দোলনকারীরা মনে করছেন, প্রধানমন্ত্রী দৃষ্টি রাখার কারণেই আসামিরা দ্রুত গ্রেপ্তার হয়েছেন। বুয়েট প্রশাসন তাদের দাবি মেনে নিচ্ছে।

ট্যাগ: bdnewshour24 ভর্তি পরীক্ষা বুয়েট শিথিল