banglanewspaper

নাগরপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের নাগরপুরে ধলেশ্বরী নদীর উপর নির্মিত শেখ হাসিনা সেতু-২ এর পশ্চিম পাড়ে দ্রুতগামী একটি মোটরসাইকেলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের পিলারের সাথে ধাক্কা খেয়ে একজনের ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়েছে। আজ সোমবার সকাল সোয়া ৯টার দিকে তিনি নিহিত হন।

নাগরপুর সদর হাসপাতাল ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সোমবার সকাল ৯টার দিকে একটি মোটরসাইকেলে ৩ বন্ধু মো. রাজিব (১৮), আকবর আলী (১৮) ও সোলায়মান (২০) নাগরপুর থেকে কেদারপুর যাওয়ার পথে ধলেশ্বরী নদীর উপর নির্মিত শেখ হাসিনা সেতু-২ এর পশ্চিম পাড়ে এসে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের পিলারের সাথে ধাক্কা খেয়ে আরোহী সাধন মিয়ার ছেলে রাজিব মিয়া ঘটনাস্থলেই নিহিত হন।

পথচারীদের সহযোগীতায় দ্রুত তাদের নাগরপুর সদর হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক (আরএমও) রোকুনুজ্জামান খান আহত রাজিবকে মৃত ঘোষণা করেন। মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত আপর বন্ধু আকরব আলীকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে রেফার্ড করেন ও সোলায়মানকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

নাগরপুর থানার এসআই মো. মামুন মৃধা বলেন, আমরা সংবাদ পেয়েই দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করি।  দুর্ঘটনা কবলিতদের তিনজনই সাপ পাড়া গ্রামের ধনগড়া, সাটুরিয়া উপজেলার মানিকগঞ্জের বাসিন্দা। সাধনের ছেলে রাজিবকে ডাক্তার মৃত ঘোষণা করেছেন। আবুলের ছেলে আকবরের মাথায় মারাত্মক আঘাত পেয়েছে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে নেয়া হয়েছে এবং সোলায়মানকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এছাড়া ঘটনাস্থল থেকে একটি ১০০ সিসি মোটরসাইকেল উদ্ধার করে নাগরপুর থানায় আনা হয়েছে। পরবর্তীতে এর মালিকানা নিশ্চিত হয়ে তাকে ফেরত দেয়া হবে। এ বিষয়ে আমাদের আইনি কাজ চলমান।

এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় চিকিৎসক রোকুনুজ্জামান খান বলেন, এটি খুবই হৃদয় বিদারক ঘটনা। আমরা যথাসাধ্য চেষ্টা করেছি। রাজিবকে মৃত অবস্থায়েই আনা হয়।

যথাযথ কর্তপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে হাসপাতালে আসা উপজেলার সচেতন বাসিন্দা বলেন, প্রতি বছরই ওই সেতুর একই জায়গায় সড়ক দুর্ঘটনায় অন্তত কয়েকজন লোক মারা যায়। এ বিষয়টি সত্যি দুঃখজনক।

ট্যাগ: bdnewshour24 নাগরপুর