banglanewspaper

মাগুরা, শ্রীপুর থানা, মাগুরার গুণী রত্ন ঘুমিয়ে আছেন এখানে। বহুবার এইপথ দিয়ে আসা যাওয়া হয়েছে। আসা যাওয়ার পথে সবাইকে একবার করে বলতে শুনেছি , এটি কবি কাজী কাদের নওয়াজের বাড়ী। কিন্তু সেভাবে কখনো ভাবা হয়নি, লেখা হয়নি।

মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) বিকেলে গেলাম কবির বাড়ীটি দেখার জন্য, একটা অদ্ভুত অনুভুতি ভাললাগা নিয়ে এলাম। কবির বাড়ীর সামনে ছেলেরা ফুটবল খেলছিল ছেলেগুলাকে বললাম বাবারা দাড়াও কয়েকটা ছবি নেব। ছবিতোলা শেষ হলে ওদেরকে বললাম কবি কোথায় ঘুমিয়ে আছেন? ওরা দেখিয়ে দিল। কবির বাড়ী থেকে ২০-২৫ হাত দূরে কবি এবং কবির স্ত্রী কবর। আর ও অনেকের কবর পরিচয় জানতে পারলাম  না। 

কবি বিরামহীনভাবে লিখেছেন। তাঁর প্রায় দশহাজারের মত কবিতা তখনকার  সময়ে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছিল।

তাঁর প্রকাশিত কয়েকটি কবিতা ......
             'শিক্ষাগুরুর মর্যাদা'
                       বাদশা আলমগীর
  কুমারে তাহার পড়াইত এক মৌলভী দিল্লির
  

                         'মা'
  মা কথাটি ছোট্ট অতি কিন্তু জেনো  ভাই ,

                'হারানো টুপি'
টুপি আমার হারিয়ে গেছে
হারিয়ে গেছে ভাইরে,

    তাঁর প্রকাশিত গ্রন্থ সমুহ - ' মরাল'  'নীল কুমুদী'  'উতলা সন্ধ্যা'   'দস্যু লাল মোহন' প্রভৃতি।
এই গুণী কবির বাড়ীটি পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। কবির স্মৃতি ধরে রাখার জন্য সংস্কার ও সংরক্ষণে কর্তৃ পক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। এ স্থানটি কুমার নদীর কূলে অবস্থিত। হয়ত এটি এক সময় পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে পরিচিতি পেতে পারে। 

 

নাজরিন জাহান 
রাজশাহী

 

 

ট্যাগ: bdnewshour24 মাগুরা শ্রীপুর