banglanewspaper

'আমার মৃত্যু হলে যেন রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন না করা হয়' এমন ইচ্ছা প্রকাশ করেন দিনাজপুরের বীর মুক্তিযোদ্ধা ইসমাইল হোসেন। অন্তিম ইচ্ছা অনুযায়ী তাকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদা ছাড়াই দাফন করা হয়।

ছেলের চাকরিচ্যুতের ঘটনায় জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের প্রতি ধিক্কার জানিয়ে তিনি এ ইচ্ছা প্রকাশ করেন। তবে, একজন মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যুর পর রাষ্ট্রের শেষ শ্রদ্ধা গ্রহণ না করাটা মেনে নিতে পারছেন না স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা।

২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর থেকে দিনাজপুর সদর উপজেলার এসিল্যান্ড এর গাড়ি চালক পদে 'নো ওয়ার্ক নো পে' এর ভিত্তিতে চাকুরি করতেন মুক্তিযোদ্ধা ইসমাইল হোসেনের ছেলে নুর ইসলাম। থাকতেন একটি সরকারি পরিত্যক্ত বাড়িতে। তবে ব্যক্তিগত কাজ করে না দেয়ায় চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে নুর ইসলামকে চাকরিচ্যুত করেন এসিল্যান্ড আরিফুল ইসলাম। বিনাদোষে ছেলেকে চাকরিচ্যুত করায় রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন না করার কথা বলেন মুক্তিযোদ্ধা ইসমাইল হোসেন।

শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী বৃহস্পতিবার (২৪ অক্টোবর) রাষ্ট্রীয় মর্যাদা ছাড়াই নিজ গ্রামে তার দাফন সম্পন্ন হয়।

মুক্তিযোদ্ধা ইসমলাই হোসেনের ছেলে নুরুজ্জামান বলেন, আমার বাবা যে কষ্ট নিয়ে দুনিয়া থেকে বিদায় নিলেন এর থেকে বড় কষ্ট আর নাই। আমার ছোট ভাইয়ের চাকরি হতে পারে কিন্তু দেশের সম্মানটুকু তো আর তিনি পেলেন না।

একজন মুক্তিযোদ্ধা মৃত্যুর পর রাষ্ট্রের শেষ শ্রদ্ধা গ্রহণ না করাটা মেনে নিতে পারছেন না স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা। এ বিষয়ে উচ্চ পর্যায়ের তদন্তের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা।

দিনাজপুর সদরের সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার লোকমান হোসেন বলেন, যদি নূর ইসলাম অন্যায় করে তবে তার শাস্তি হবে। আর যদি অফিসাররা অন্যায় করে থাকেন তবে তা তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানাচ্ছি।

অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে প্রধান করে এক সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক।

দিনাজপুরের জেলা প্রশাসক মাহমুদুল আলম বলেন, এক সদস্যের কমিটি করেছি। ওই কমিটি রোববারের মধ্যে প্রতিবেদন দেবে। এরপর আমরা ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ২২ অক্টোবর জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিমের বরাবরে একটি চিঠি লেখেন মুক্তিযোদ্ধা ইসমাইল হোসেন এবং পরদিনই তার মৃত্যু হয়। চিঠির শেষ অংশে, মৃত্যুর পর তাকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন না করার কথা উল্লেখ করেন তিনি।

ট্যাগ: bdnewshour24 অভিমানী মুক্তিযোদ্ধা রাষ্ট্রীয় মর্যাদা ছাড়া দাফন