banglanewspaper

চর্বিযুক্ত, ঝালযুক্ত ও এসিডজাতীয় খাবার বুক জ্বালাপোড়ার কারণ। তবে জানেন কি, আরো কিছু বিষয় রয়েছে, যেগুলো বুক জ্বালাপোড়ার কারণ হতে পারে? অনেকেই সেই কারণগুলো সম্পর্কে সচেতন নয়।

বুক জ্বালাপোড়ার কিছু অজানা কারণের বিষয়ে জানিয়েছে স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট ওয়ান মিলিয়ন হেলথ টিপস।

১. সিগারেট

সিগারেট ফুসফুসের ক্যানসার ও হৃদরোগ তৈরি করে, এ কথা প্রায় সবারই জানা। তবে আপনি কি জানেন, এই বাজে অভ্যাসটি বুক জ্বালাপোড়ার সমস্যা তৈরি করে? কারণ, সিগারেটের মধ্যে থাকা বিষাক্ত পদার্থ লোয়ার ইসোফেজাল স্ফিনটার বা এলইএস তৈরি করে। এতে বুক জ্বালাপোড়ার সমস্যা তৈরি হয়।

২. মাছের তেল

মাছের তেল উপকারী, এ কথা নিশ্চয়ই শুনে থাকবেন। আর এ জন্য অনেকের মাছের তেলের সাপ্লিমেন্ট খান। এই ধরনের সাপ্লিমেন্টও কিন্তু অনেক সময় বুক জ্বালাপোড়া তৈরি করে। কারণ অন্যান্য তৈলাক্ত খাবারের মতো এতেও তেল রয়েছে। তাই কোনো কিছু খাওয়ার পর মাছের সাপ্লিমেন্ট গ্রহণের পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা।

৩. এনএসএআইডিএস

ব্যথা ও প্রদাহ দূর করার জন্য এ ধরনের ওষুধ ব্যবহার করা হয়। তবে এ ধরনের ওষুধ থেকেও অনেক সময় বুক জ্বালাপোড়া হয়। আর এ জন্য কিছু খাবার খাওয়ার পর ব্যথানাশক ওষুধ খাওয়ার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের।

৪. স্থূলতা

স্থূলতার সঙ্গে উচ্চ রক্তের সুগার ও হার্টের রোগের সম্পর্ক রয়েছে। জানেন কি, স্থূলতা বুক জ্বালাপোড়া তৈরি করতে পারে? অতিরিক্ত চর্বি জাতীয় টিস্যুর কারণে এই সমস্যা হয়।

৫. অতিরিক্ত মানসিক চাপ

আপনি কি অতিরিক্ত মানসিক চাপযুক্ত জীবন কাটান? তাই মাঝেমধ্যে বুক জ্বালাপোড়ার সমস্যা হলে চিন্তিত হবেন না। বিশেষজ্ঞরা বলেন, অতিরিক্ত মানসিক চাপ কখনো কখনো পাকস্থলীতে এসিড ও অস্বস্তি তৈরি করে।

ট্যাগ: bdnewshour24 বুক জ্বালাপোড়া