banglanewspaper

আলফাজ সরকার আকাশ, শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি: গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্জ্ব এড.শামসুল আলম প্রধানের নাম ব্যবহার করে চাঁদা নেয়ার অভিযোগে যুবদলের কথিত এক নেতাকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। 

৩০ অক্টোবর রাতে পৌর এলাকার গরুর হাট নামক স্থান হতে তাকে আটক করা হয়। পরে শামীমা আখতার নামে এক ব্যবসায়ীর দায়ের করা মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয় বলে জানায় পুলিশ। 

গ্রেফতার মোঃ রেজাউল করিম ওরফে মোজাম্মেল (৪০)  উপজেলার গোসিংগা ইউনিয়নের পটকা গ্রামের আঃ খালেকের ছেলে। সে যুবদলের একজন নেতা দাবি করে জানায় স্থানীয়রা।

শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শহীদুল ইসলাম মোল্লা বিপিএম জানান, নিজেকে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্জ্ব শামসুল আলম প্রধান পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন জনের কাছে টাকা দাবি করতো রেজাউল করিম ওরফে  মোজাম্মেল। গত কয়েকদিন আগে  শ্রীপুর কলেজ পাড়ার স্মার্ট ফ্যামিলি মলের স্বত্বাধিকারী শামীমা আখতারের কাছে প্রথমে শ্রীপুরে আওয়ামী লীগের  জনসভা আছে বলে ২০০০ টাকা নেয়। পরে আরো ১০০০০ টাকা দাবি করলে বিষয়টি উপজেলা চেয়ারম্যানকে অবহিত করেন তিনি।

একসময়  উপজেলা চেয়ারম্যান তাকে থানায় জানানোর অনুরোধ করেন। পরে শামীম আখতার শ্রীপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। ওই অভিযোগের সুত্র ধরে এবং তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার করে এ ঘটনার সাথে জড়িত মোজাম্মেল হোসেনকে আটক করা হয়। সে মাদক ব্যবসার সাথেও জড়িত বলেও জানান তিনি। 

উল্লেখ্য, এর আগেও উপজেলা চেয়ারম্যান পরিচয়ে শ্রীপুরের ঠিকাদার এড. তোফাজ্জল হোসেন শাহীন, শ্রীপুর বাজারের সুমাইয়া এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী সোহেল রানা,সমাজসেবক মতিনুর বেগম মালা ও রোজলিনা হকসহ কয়েকজনের কাছে বিকাশের মাধ্যমে বিভিন্ন অংকের টাকা দাবী করে আসছিল একটি চক্র। এমন টাকা দাবীর বিষয়ে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্জ্ব এড. শামসুল আলম প্রধানকে জানানো হলে তিনি শ্রীপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন বলে জানা যায়। 

এ বিষয়ে শ্রীপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্জ্ব এড.শামসুল আলম প্রধান জানান, ১৯৬৯ সাল হতে আমি শ্রীপুরে রাজনীতি করি। নিজের জন্য বা দলের জন্য চাঁদাবাজির কোন রেকর্ড আমার নাই। শ্রীপুর থানা ছাত্র লীগের সভাপতি, জেলা ছাত্র লীগের সভাপতি,  উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, বর্তমানে উপজেলা আওয়ামী লীগের  সভাপতি  ও  উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হয়ে রাজনীতির দীর্ঘ ৫০ বছরে সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে  বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে কাজ করে যাচ্ছি । এছাড়াও  আমি গাজীপুর আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ছিলাম। আমার সুনাম নষ্ট করতে কোন কুচক্রী মহল এমন ষড়যন্ত্র করে আসছে বলেও দাবী করেন তিনি । 

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লিয়াকত আলী জানান, গ্রেপ্তার মোজাম্মেল উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের নাম পরিচয়ে টাকা আদায়ের কথা স্বীকার করেছে। তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির একটি মামলা নং-১০২/৩০ দায়ের হয়েছে। 

ট্যাগ: bdnewshour24 শ্রীপুর