banglanewspaper

টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসক কার্যালয় থেকে ভুয়া যুগ্ম সচিবসহ দুই প্রতারককে আটক এবং তাদের কাছ থেকে এক লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে । পরে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার মাধ্যমে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দিয়েছে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুখময় সরকার।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুখময় সরকার জানান, বুধবার (৩০ অক্টোবর) জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে অফিস চলাকালীন সময়ে দুইজন প্রতারক আসেন। একজন নিজেকে যুগ্ম সচিব পরিচয় দেন। অন্যজন বাহিরে অপেক্ষা করেন।

এসময় তারা অফিসের বিভিন্ন কর্মকর্তা কর্মচারীদের সাথে অসৌজন্য মূলক আচরণ করে নিজেদের কার্যসিদ্ধি করার চেষ্টা করেন। এক পর্যায়ে জেলা প্রশাসকের কক্ষে প্রবেশ করে নিজেকে যুগ্ম সচিব পরিচয় দেন এবং একজনের জন্য চাকুরীর সুপারিশ করেন। তার আচরণ সন্দেহ হওয়ায় জেলা প্রশাসক খোজ খবর নিয়ে জানতে পারেন তিনি ভুয়া পরিচয় দিচ্ছেন।

পরে জেলা প্রশাসক টাঙ্গাইল মডেল থানা পুলিশকে সংবাদ দিলে পুলিশ এসে ভুয়া যুগ্ম সচিব পরিচয়কারী এবং তার আরেকজন সহযোগীকে আটক করে। পরবর্তীতে জিজ্ঞাসাবাদে তারা ভুয়া পরিচয় দিয়েছে স্বীকার করে।

যুগ্ম সচিব পরিচয়দানকারী দিনাজপুর জেলার খানসাবা উপজেলার পাঠানপাড়া গ্রামের মৃত ইসমাইল হোসেনের ছেলে আশরাফ আলীকে এবং সহযোগী গাজিপুর জেলার কালিগঞ্জ উপজেলার উত্তর ঘইবাড়া গ্রামের হেলাল উদ্দিনের ছেলে মুমিন হোসেন। 

তারা দীর্ঘদিন যাবৎ প্রতারণা করে বিভিন্ন জেলায় ভুয়া পরিচয় দিয়ে তদবির বাণিজ্যসহ বিভিন্ন জনের সাথে প্রতারণা করে আসছেন। পরে তাৎক্ষণিক ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে যুগ্ম সচিব পরিচয়দানকারীকে এক বছর এবং সহযোগীকে এক মাসের কারাদণ্ড দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ট্যাগ: bdnewshour24 যুগ্ম সচিব আটক