banglanewspaper

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসন তদন্ত এগিয়ে নিতে একটি প্রস্তাব পাস করেছে দেশটির প্রতিনিধি পরিষদ। এর ফলে অভিশংসন তদন্তের বিষয়ে আর কোনো বাধা থাকল না।

বৃহস্পতিবার মার্কিন কংগ্রেসে ২৩২-১৯৬ ভোটে এ প্রস্তাব পাস হয়। রিপাবলিকান সদস্যরা বিরোধীতা করলেও এ প্রস্তাব পাস হয়। অভিশংসন তদন্ত নিয়ে পুরো হাউজে এটিই প্রথম ভোট। এতে করে প্রকাশ্যে শুনানি অনুষ্ঠান এবং তদন্তের পরবর্তী ধাপে যাওয়ার পট প্রস্তুত হলো।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসন তদন্ত নিয়ে পুরো হাউসে এটিই প্রথম ভোট। এতে করে প্রকাশ্যে শুনানি অনুষ্ঠান এবং তদন্তের পরবর্তী ধাপে যাওয়ার পট প্রস্তুত হলো।

দুইজন ডেমোক্র্যাট সদস্য প্রস্তাবের বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন।  কোনো রিপাবলিকান সদস্যই প্রস্তাবটি সমর্থন করেননি এবং গত বছর রিপাবলিকান পার্টি ছেড়ে যাওয়া একজন স্বতন্ত্র সদস্য প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দিয়েছেন।

এই প্রস্তাবে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে অভিশংসন করা হবে কিনা শুধু এমনটি নয় বরং ট্রাম্পের আইনজীবী কী কী অধিকার পাবেন প্রস্তাবনায় তার বলা হয়েছে।

ডেমোক্র্যাট নিয়ন্ত্রিত প্রতিনিধি পরিষদে এ ভোটই ছিল ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসনের পক্ষে সমর্থনের প্রথম আনুষ্ঠানিক পরীক্ষা।  হোয়াইট হাউস এ ভোটাভুটির নিন্দা করেছে।

গত ২৫ জুলাই ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির সঙ্গে ট্রাম্প কথা বলেন। এ সময় তিনি ২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে নিজের সম্ভাব্য প্রতিদ্বন্দ্বী সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও তার ছেলে হান্টার বাইডেনের ইউক্রেনে অতীত ব্যবসার দুর্নীতির তদন্তের জন্য জেলেনস্কিকে চাপ দেন। এই কথোপকথনের তথ্য ফাঁস হওয়ার পর ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ২৪ সেপ্টেম্বর থেকে অভিশংসন তদন্ত শুরু করে ডেমোক্র্যাট সংখ্যাগরিষ্ঠ কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদ।

ডেমোক্র্যাটদের অভিযোগ, ২০২০ সালের নির্বাচনে জিততেই বিদেশি শক্তিকে অনৈতিকভাবে ব্যবহার করার চেষ্টা করেছেন প্রেসিডেন্ট, যা বিশ্বাসঘাতকতার নামান্তর।

প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি গত আগস্ট থেকে এ বিষয়ে তদন্ত শুরুর নির্দেশ দেন। তখন ভোটাভুটি ছাড়াই এ বিষয়ে কার্যক্রম শুরু হওয়ায় এই তদন্তকে অবৈধ বলে দাবি করছিলেন রিপাবলিকানরা।

সম্প্রতি আদালত সেই দাবি খারিজ করে দেয়। হোয়াইট হাউস এই তদন্তে কোনও রকম সহযোগিতা করবে না বলেও জানিয়েছিল।

ট্যাগ: bdnewshour24 ট্রাম্প