banglanewspaper

ভারতের মুম্বাইয়ে পাপারাজ্জি-সংস্কৃতি বেড়েই চলেছে। বলিউডের তারকারা যেখানেই যান, পিছু নেন পাপারাজ্জিরা। ছবি বা ভিডিও ধারণ করেন। তারপর তা ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

অনেকেই বলছেন, পাপারাজ্জি-সংস্কৃতির কারণে ভারতের বিনোদন অঙ্গন লাভবানই হচ্ছে। তারকাদের বিলাসী জীবন সম্পর্কে জানতে পারছেন আগ্রহীরা। তবে অনেকে ভিন্নমতও পোষণ করেন। এতে তারকাদের ব্যক্তিগত গোপনীয়তা অরক্ষিত হয় বলে মত তাঁদের। তা ছাড়া সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নেটিজেনদের আক্রমণের শিকার তো হতেই হয়। সবশেষ আক্রমণের মুখে পড়লেন প্রয়াত অভিনেত্রী শ্রীদেবীর মেয়ে জাহ্নবী কাপুর।

ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস টাইমস প্রতিবেদনে জানিয়েছে, সম্প্রতি মুম্বাইয়ে একটি রেস্তোরাঁর বাইরে ক্যামেরাবন্দি হন ‘ধড়ক’খ্যাত অভিনেত্রী জাহ্নবী কাপুর। গাড়ি থেকে নামার পরই আলোকচিত্রীদের ক্যামেরার ফ্ল্যাশ জ্বলে ওঠে। জাহ্নবী পরেছিলেন ন্যুড কালারের আঁটসাঁট পোশাক।

যা হোক, ওই সময় কয়েক আলোকচিত্রী বিব্রতকর অ্যাঙ্গেল থেকে ছবি তোলেন জাহ্নবী কাপুরের। আর সেটা জানারও কথা নয় তাঁর। সেই ছবি তাঁরা প্রকাশ করেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। আর তাতেই জ্বলে ওঠে নেটিজেনরা। অরুচিকর মন্তব্য শুরু হয় জাহ্নবী কাপুরকে ঘিরে।

ওই ছবি দেখে নেটিজেনরা তাঁর শরীরাংশ নিয়ে বাজে মন্তব্য করতে থাকেন। কেউ কেউ ওই অ্যাঙ্গেলে ছবি তোলার জন্য পাপারাজ্জিকে পুরস্কার দিতেও বলেন!

যা হোক, এর আগেও সোশ্যালে নেটিজেনদের আক্রমণের শিকার হয়েছেন জাহ্নবী কাপুর। প্রতিদিন জিমে যান এ তারকা-সন্তান, আর তাঁর পিছু নেন পাপারাজ্জিরা। জিম পোশাকের কারণে বহুবার বাজে মন্তব্য শুনতে হয়েছে তাঁকে। অবশ্য নেটিজেনদের বিরূপ প্রতিক্রিয়া নিয়ে কখনো ধৈর্য হারাননি শ্রীদেবীকন্যা।

ট্যাগ: bdnewshour24 শ্রীদেবী