banglanewspaper

নবীন পুলিশ কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম বলেছেন, মানুষের সেবা করার মানসিকতা গড়ে তুলতে হবে। মানুষের প্রত্যাশা বেড়ে গেছে তা আমাদের বুঝতে হবে। তারা পুলিশকে বন্ধু হিসেবে দেখতে চায়, কাছে পেতে চায়।

শনিবার (২ নভেম্বর) ডিএমপি হেডকোয়ার্টার্সে ৩৭তম বিসিএস (পুলিশ) ব্যাচের নবীন কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমরা কি চাই- তার পরিস্কার ধারনা থাকতে হবে। গতানুগতিক হলে আপনার ক্যারিয়ারও গতানুগতিক হবে। আর ভাল কাজ করলে ভাল ক্যারিয়ার গড়ে তোলার সুযোগ থাকবে।

নবীন কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণের গুরুত্ব উল্লেখ করে ডিএমপি কমিশনার বলেন, ট্রেনিংয়ের প্রথম দিন থেকেই গুরুত্ব দিয়ে প্রশিক্ষণ নিতে হবে। কিছু না বুঝলে জিজ্ঞেস করে বুঝে নিতে হবে। ঐতিহ্যবাহী ট্রেনিং সেন্টার সারদা ১০০ বছর পার করেছে। অফিসার তৈরীর যাবতীয় ব্যবস্থা সেখানে আছে। সারদার ট্রেনিংয়ের মত সুযোগ সারা জীবনে আর আসবে না।

মোহা. শফিকুল ইসলাম আরও বলেন, মনে রাখতে হবে ট্রেনিং শেষে যে দিন কর্মস্থলে যোগদান করবেন সেদিনই এমন কিছু লোকের নেতৃত্ব দিতে হবে যাদের অধিকাংশের ১৫/২০ বছরের চাকরির অভিজ্ঞতা থাকবে। তাই নেতৃত্ব দেয়ার জন্য নিজেকে দক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে। আর নিজেকে দক্ষ করে গড়ে তোলার ক্ষেত্রে প্রশিক্ষনের কোনও বিকল্প নেই।

নবীন অফিসারদের উদ্দেশ্যে ডিএমপি কমিশনার বলেন, দেশ স্বাধীন না হলে বিসিএস কর্মকর্তা হিসেবে চাকরি পাওয়ার সুযোগ হতো না। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যে স্বপ্ন ও চেতনা নিয়ে দেশকে স্বাধীন করেছেন, সেই চেতনাকে ধারন করে দেশ ও জনগনের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখতে হবে।  

রজাশাহীর সারদায় অবস্থিত বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমীতে বিসিএস পুলিশ অফিসারদের এক বছর মেয়াদী মৌলিক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়। কর্মকর্তাদের এই প্রশিক্ষণে পাঠানোর আগে পুলিশের বিভিন্ন ইউনিট সম্পর্কে ধারনা দেওয়ার অংশ হিসেবে ডিএমপি একটি ওরিয়েন্টেশন কোর্সের আয়োজন করে। 

এসময় ডিএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ট্যাগ: bdnewshour24 ডিএমপি কমিশনার