banglanewspaper

মাগুরা প্রতিনিধি: আনন্দ ,উল্লাশ আর ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্য দিয়ে কয়েক লক্ষ  দর্শকের উপস্থিতিতে  সোমবার বিকালে মহম্মদপুর উপজেলা সদরের পূর্বপাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া মধুমতি নদীতে আবহমান গ্রাম-বাংলার লোকজ ঐতিহ্যবাহী প্রাণ আপ বিহারী লাল শিকদার নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মাগুরা জেলা ক্রীড়া সংস্থা এ মেলার আয়োজন করে। মেলাকে ঘিরে মধুমতি নদীর এলাংখালি ঘাট এলাকা ও নদীর দুই ধারের প্রায় ৫ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে দোকান-পাট ও বাহারি পণ্যের পসরা সাজিয়ে বসে স্টল। পথে পথে শোভা পেয়েছে বাহারি তোরণ।

বাৎসরিক এ নৌকাবাইচ উপভোগ করতে সকাল থেকেই শেখ হাসিনা সেতু সংলগ্ন মধুমতি নদীর তীরে পাশ্ববর্তী যশোর, ঝিনাইদাহ, নড়াইল, ফরিদপুর সহ কয়েকটি জেলার বিভিন্ন শ্রেনির মানুষ ও এলাকার শিশু-কিশোর-কিশোরিসহ সকল বয়সী নারী-পুরুষ জমায়েত হতে থাকেন। তাদের উপস্থিতিতে এলাকায় সৃষ্টি হয় আনন্দঘণ ও উৎসব মূখর পরিবেশ।

উপজেলা  নির্বাহী অফিসার মো. আসিফুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে দুপুর ২ টার সময় বেলুন ও শান্তির প্রতিক কবুতর উড়িয়ে প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন সাবেক যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মাগুরা- ২ আসনের সাংসদ সদস্য ড. শ্রী বীরেন শিকদার।

উপস্থিত থেকে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মাগুরা-২ আসনের সংসদ সদস্য ড.শ্যী-বীরেন শিকদার এমপি, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন মাগুরার নবাগত জেলা প্রশাসক ড. আশরাফুল আলম, পুলিশ সুপার খান মুহাম্মদ রেজোয়ান, মহম্মদপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ আবু আব্দুল্লাহেল কাফি, মধূখালি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান বাচ্চু, আলফাডাঙ্গা পরিষদ চেয়ারম্যান একে এম জাহিদুল হাসান, আমিনুর রহমান কলেজের অধ্যক্ষ ও প্রেসক্লাব মহম্মদপুরের সভাপতি  বিপ্লব রেজা বিকো মহম্মদপুর থানার ওসি তারক বিশ্বাস, প্রাণ আপ গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক মোঃ আনিসুর  রহমান, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক হাজী মোঃ মকবুল হোসেন, এবং উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার আহবায়ক মিজানুর রহমান মিলন প্রমূখ।

প্রতিযোগিতা শুরুর আগ মুহূর্তে মধুমতি নদীর দুই পাড়ে নামে কয়েক লক্ষ মানুষের ঢল। উল্লাসে মেতে উঠে নদী পাড়ের আমুদে লাখো দর্শক। বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা ১৬ টি নৌকা এ বাইচে অংশ নেয়।

ট্যাগ: bdnewshour24 মহম্মদপুর নৌকাবাইচ মধুমতির পাড়