banglanewspaper

বিমানের ককপিটে নারী যাত্রীর একটি ছবি ভাইরাল হওয়াই কাল হলো এক চীনা পাইলটের জন্য। বিমান চালানোর লাইসেন্সটাই হারাতে হলো ওই পাইলটকে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চলতি সপ্তাহে ভাইরাল হওয়া ছবিটি তোলা হয়েছিল এ বছরের জানুয়ারিতে। চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, গুইলিন শহর থেকে ইয়াংঝু শহরে যাচ্ছিল এয়ার গুইলিনের একটি ফ্লাইট। ওই ফ্লাইটে ভ্রমণকারী এক নারী যাত্রীকে ককপিটে বসে পোজ দিতে দেখা যায়। ভাইরাল হওয়া ওই ছবিতে আরো দেখা যায়, নারীটির পাশেই খাবার রাখা রয়েছে। ছবিটি অন্তর্জালে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়লে ওই ফ্লাইটের পাইলটের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয় এয়ার গুইলিন কর্তৃপক্ষ।

এক বিবৃতিতে বিমান কর্তৃপক্ষ জানায়, সংশ্লিষ্ট পাইলট বিমান উড্ডয়ন-সংক্রান্ত নীতিমালা ভঙ্গ করেছেন।

চীনের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম দ্য গ্লোবাল টাইমসের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ৪ জানুয়ারি এয়ার গুইলিনের জিটি১০১১ ফ্লাইটে ঘটনাটি ঘটে।

কিন্তু চলতি সপ্তাহের রোববার চীনা মাইক্রোব্লগিং সাইট ওয়েবোতে একজন নারী যাত্রীর বিমানের ককপিটে বসে থাকার একটি ছবি ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়লে তা এয়ার গুইলিন কর্তৃপক্ষের নজরে আসে।

ওই ছবিতে দেখা যায়, একজন নারী ককপিটে বসে হাতের দুই আঙুল দিয়ে বিজয়ের চিহ্নস্বরূপ রোমান হরফ ‘ভি’ দেখাচ্ছেন। ছবিটির সঙ্গে লেখা, ‘ক্যাপ্টেনকে ধন্যবাদ, তাঁর জন্যই সম্ভব হলো। (আমি) ভীষণ খুশি।’

সংবাদমাধ্যম চায়নিজ নিউজ সার্ভিসের তথ্য অনুযায়ী, ছবির ওই নারী গুইলিনের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ফ্লাইট অ্যাটেনডেন্ট হিসেবে প্রশিক্ষণরত বলে কথিত রয়েছে।  

এদিকে আলোচিত ছবিটি আকাশে উড্ডয়নরত অবস্থায় তোলা হয়েছে কি না, সে বিষয়টি এয়ার গুইলিনের পক্ষ থেকে সুনির্দিষ্ট করে বলা হয়নি। তবে একাধিক চীনা পাইলট ও বিশ্লেষক বলছেন, ছবিটি দেখে মনে হচ্ছে ছবিটি মাঝ আকাশেই তোলা হয়েছে।

এরই মধ্যে আজীবনের জন্য বিমান চালনা থেকে নিষিদ্ধ হয়েছেন ওই ফ্লাইটের পাইলট।

এক বিবৃতিতে এয়ার গুইলিন জানিয়েছে, অভিযুক্ত পাইলট ‘অননুমোদিত ব্যক্তিকে ককপিটে ঢুকতে দিয়ে (নীতিমালা) লঙ্ঘন করেছেন।’

গত বছর স্ত্রীকে ককপিটে ঢুকতে দেওয়ার জেরে ছয় মাসের জন্য বিমান উড্ডয়নে নিষেধাজ্ঞাসহ প্রশিক্ষণের লাইসেন্স হারান চীনের ডোঙ্ঘাই এয়ারলাইনসের এক বিমান উড্ডয়ন প্রশিক্ষক।

ট্যাগ: bdnewshour24 পাইলট