banglanewspaper

পূর্ব ও মধ্য বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপটি আরও শক্তিশালী হয়েছে। ফলে তা গভীর নিম্নচাপে রূপ নিয়েছে। এতে ঘূর্ণিঝড় হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

আবহাওয়া অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, আগামী দু’দিন উপকূলীয় এলাকায় বৈরী আবহাওয়া বিরাজ করতে পারে। ইতোমধ্যে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও সমুদ্রবন্দরগুলোকে ১ নম্বর দূরবর্তী সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। তবে নদীবন্দরগুলোর জন্য কোনো সতর্কতা নেই।

বুধবার (৬ নভেম্বর) রাতে আবহাওয়াবিদ এটিএম বজলুর রশীদ বলেন, ‘গভীর ওই নিম্নচাপটি আজ রাতে আরও শক্তি সঞ্চয় করার সম্ভাবনা রয়েছে। সেক্ষেত্রে তা ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে। আর ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিলে ঝড়টির নাম হবে ‘বুলবুল’।’

তিনি আরও জানান, গভীর নিম্নচাপটি বুধবার (৬ নভেম্বর) দুপুর ১২টা সময় চট্টগ্রাম থেকে ১ হাজার ৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণ পশ্চিমে, কক্সবাজার থেকে ৯৩০ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণ পশ্চিমে, মোংলা থেকে ৯৯৫ কিলোমিটার দক্ষিণে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৯৫০ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থান করেছিল।

গভীর নিম্নচাপের কেন্দ্রের ৪৮ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৫০ কিলোমিটার। যা দমকা হাওয়া অথবা ঝড়ো হাওয়া আকারে ৬০ কিলোমিটার পর্যন্ত বাড়ছে। এর প্রভাবে সাগর উত্তাল।

ট্যাগ: bdnewshour24 আবহাওয়া ঘূর্ণিঝড়