banglanewspaper

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রেন দুর্ঘটনায় আহত হয়ে সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শিশুটির পরিচয় মিলেছে। তার নাম নাইমা, বাড়ি চাঁদপুরের পশ্চিমপাড়ে।

মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) বেলা সাড়ে এগারটার দিকে শিশুটির চাচা মানিক টেলিফোনে জানান, তিনি ফেসবুকে ছবি দেখে তার ভাইয়ের মেয়ে নাইমাকে চিনতে পারেন। এখন তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নাইমার কাছে যাচ্ছেন। তার সঙ্গে নাইমার বাবা মাঈনৃুদ্দিনও আছেন।

মানিক সারাবাংলাকে বলেন, সিলেটে মাজার জিয়ারত শেষে মা কাকলী ও দাদা-দাদী, নানা-নানীর সঙ্গে নাইমা চাঁদপুরে ফিরছিলো। আমরা ফেসবুকে নাইমার ছবি দেখে চিনতে পারি। কিন্তু ওর মা কাকলী ও নানীর খোঁজ এখনও পাইনি।

মানিক আরও জানান, নাইমার দাদীর সঙ্গে ফোনে কথা হয়েছে। তিনি কুমিল্লা হাসপাতালে ভর্তি আছেন।  ওর বাবা ঢাকা থেকে পৌঁছেছে। এখন আমরা প্রথমে নাইমার কাছে যাচ্ছি। এরপর অন্যদের খোঁজে বের হব।

এদিকে শিশু নাইমাকে দুর্ঘটনাস্থল থেকে হাসপাতালে নিয়ে আসে স্থানীয় যুবক ফাহিম জানান, তারা অ্যাম্বুলেন্সে দুইটি শিশুকে আহত অবস্থায় এনেছিলেন। তাদের একজন মারা গেছে।  নাইমা নামের শিশুটিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। ফেসবুকে শিশুটির খবরের নিচে তার  ফোন নাম্বারটি দেওয়া ছিল। এই নাম্বারেই নাইমার কাকা মানিক আমাকে ফোন দেন। এখন তারা হাসপাতালে আসছেন।

ট্যাগ: bdnewshour24 ব্রাহ্মণবাড়িয়া