banglanewspaper

আলফাজ সরকার আকাশ, শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি: বাবা-মা থেকে অনেকটাই দূরে থাকা নাতনিকে নিয়ে বড় স্বপ্নের বাঁধ বেঁধেছিল নানী রানী বেগম। বিদেশ থেকে পাঠানো মেয়ের বেতনের টাকা থেকে খেয়ে না খেয়ে নাতনীর পড়া-লেখার খরচ চালিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি।

পড়াশোনা শেষ করে বিমানের পাইলট হবে এবং নাতনির এমন সাফল্যে সমাজে সকলেই তার সুনাম বলবে। সেই স্বপ্নই দেখতেছিলেন তিনি। নানীর এমন স্বপ্ন পূরনের আগেই পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে কোন এক অজানা কারনে আত্মহত্যা করেছেন গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার স্কুল ছাত্রী আন্নী আক্তার বাঁধন (১৫)।

১৩ নভেম্বর উপজেলার বরমী ইউনিয়নের গাড়ারণ গ্রামে রাতের কোন এক সময় আত্মহত্যা করে আন্নী। নিহত আন্নী আক্তার বাঁধন ওই গ্রামের বাদল মিয়ার মেয়ে। সে শ্রীপুর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থী ছিল। 

স্বজনদের বরাত দিয়ে শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবদুল মালেক জানান, মঙ্গলবার রাতের খাবার খেয়ে সে ঘরে ঘুমাতে যায়। সকালে ডাকাডাকি করে তার কোন সাড়া শব্দ না পেয়ে ঘরের আড়ার সাথে ওড়না দিয়ে ঝুলতে দেখে স্বজনরা। পরে পুলিশকে খবর দিলে ঘটনাস্থল হতে তার ঝুলন্ত  মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। প্রেমঘটিত কারনে  পারিবারিক অমতের জন্য সে আত্মহত্যা করে থাকতে পারে বলেও ধারনা করেন তিনি। 

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লিয়াকত আলী জানান, এটি নিশ্চিত একটি আত্মহত্যা। তবে কি কারনে সে আত্মহত্যা করেছে তা ময়নাতদন্তের পর বিস্তারিত জানা যাবে।

ট্যাগ: bdnewshour24 শ্রীপুর