banglanewspaper

যুক্তরাজ্যের লন্ডন ব্রিজে ছুরি দিয়ে চালানো হামলায় দুই জন নিহত এবং তিন জন আহত হয়েছেন। এছাড়া পুলিশের গুলিতে সন্দেহভাজন হামলাকারী নিহত হয়েছেন। লন্ডন মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার ক্রেসিডা ডিক ঘটনার পর সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছেন।

এক প্রতিবেদনে দ্য গার্ডিয়ান জানিয়েছে, ওই হামলাকারীর নাম উসমান খান। তিনি সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের জন্য এর আগেও দোষী সাব্যস্ত হয়েছিলেন। সন্ত্রাসীদের সামরিক প্রশিক্ষণ দেয়ার জন্য একটি ক্যাম্প খোলার পরিকল্পনা ছিল তার।

জানা গেছে, লন্ডন ব্রিজে বেশ কয়েকজন ব্যক্তিকে ছুরিকাঘাত করেন এক ব্যক্তি। এরপর পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে গুলি ছোড়ে। স্থানীয় সময় শুক্রবার বেলা দুইটার দিকে এই ঘটনা ঘটে। এসময় পুলিশ সেতু দিয়ে সব ধরনের চলাচল বন্ধ করে দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে গুলি ছোড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই সন্দেহভাজন হামলাকারী নিহত হন। তার শরীরের সঙ্গে বিস্ফোরক ডিভাইস ছিল বলে ধারণা পুলিশের। তবে হামলাকারী তিনি একাই নাকি আরও কেউ ছিল, তা নিশ্চিত নয়।

লন্ডন অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস এই ঘটনাকে ‘গুরুতর’ বলে অভিহিত করেছে। ব্রিটিশ ট্রান্সপোর্ট পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার পর লন্ডন ব্রিজ স্টেশন তাৎক্ষণিকভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়। এর কয়েক ঘণ্টা পর ফের যান চলাচল শুরু হয়।

এই ঘটনায় পুলিশি তৎপরতার প্রশংসা করেছেন ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। সেই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, লন্ডন ব্রিজে হামলার ঘটনার প্রতিটি আপডেটই সম্পর্কে ওয়াকিবহাল রয়েছেন।

লন্ডনের মেয়র সাদিক খান জানিয়েছেন, লন্ডনের পুলিশ এবং সাধারণ জনগণ হিরোর মতো কাজ করেছে। তারা তাদের সাহস দেখিয়ে দিয়েছে।

এর আগে ২০১৭ সালের জুনে তিন জঙ্গি লন্ডন ব্রিজে ভিড়ের মধ্যে ভ্যান চালিয়ে দিয়ে এবং ছুরিকাঘাতে আটজনকে হত্যা করে।

ট্যাগ: bdnewshour24 লন্ডন