banglanewspaper

সারাদেশে আবারও ধর্মঘট পালন করছেন নৌযান শ্রমিকরা। বাংলাদেশ জাহাজ শ্রমিক ফেডারেশনের ১৪ দফা ও নৌযান শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের ১১ দফা বাস্তবায়নের দাবিতে এ ধর্মঘট শুরু হয় শুক্রবার রাত ১২টা থেকে। তবে শ্রম মন্ত্রণালয় বলছে, সব দাবি মেনে নেয়ার পরও ধর্মঘট অযৌক্তিক।

ধর্মঘটের প্রথম দিন মালিক ও শ্রমিক সংগঠনের পাল্টাপাল্টি অবস্থান লক্ষ্য করা গেছে। মালিক পক্ষের হস্তক্ষেপে শনিবার সকালে স্বল্প সংখ্যক লঞ্চ সদরঘাট থেকে চাঁদপুর ও শরিয়তপুরের উদ্দেশে যাত্রা করলেও শঙ্কা কাটছে না দূরপাল্লার লঞ্চ চলাচল নিয়ে।

শ্রমিক সংগঠনের ধর্মঘটকে অযৌক্তিক দাবি করে মালিকপক্ষ বলছে, লঞ্চ যোগাযোগ স্বাভাবিক রাখতে শক্ত অবস্থানে থাকবেন তারা।

অন্যদিকে, ২০১৬ সালে ঘোষিত গেজেট অনুযায়ী সব নৌযান শ্রমিকদের বেতন ভাতা নিশ্চতসহ ১১ দফার পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত ধর্মঘট চালিয়ে যাওয়ার দাবিতে অটল শ্রমিকরা। এর পরও সকালে ঢাকা থেকে কিছু লঞ্চ ছাড়লেও, ভিন্নচিত্র দেখা গেছে বরিশালসহ দক্ষিণাঞ্চলে। এতে ভোগান্তিতে পড়েন যাত্রীরা।

ট্যাগ: bdnewshour24 ধর্মঘট নৌযান শ্রমিক