banglanewspaper

চলে গেলেন সংগীতশিল্পী কুমার বিশ্বজিৎ’র মা শোভা রাণী দে (৮৩)। বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) ভোর সাড়ে ৩টায় রাজধানীর উত্তরার ক্রিসেন্ট হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। বিকেলে রাজধানীর পোস্তগোলা শ্মশানে শোভা রানী দে’র শেষকৃত্য অনুষ্ঠিত হবে।

কুমার বিশ্বজিৎ’র ঘনিষ্ঠ সংগীতশিল্পী কিশোর দাস মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

কিশোর বলেন, তিনি (শোভা রাণী দে) অনেকদিন ধরে অসুস্থ ছিলেন। গত এক মাস হাসপাতালে তার চিকিৎসা চলছিল। বার্ধক্যজনিত নানা রোগে ভুগছিলেন তিনি। বৃহস্পতিবার ভোরে আমাদের সবাইকে ছেড়ে পৃথিবী থেকে বিদায় নিলেন।

শোকাহত কুমার বিশ্বজিৎ জানান, গত নভেম্বরে তার মা হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে শারীরিক অবস্থা খারাপ হলে তাকে লাইফ সাপোর্টও দেওয়া হয়। গুণী এই শিল্পী তার মায়ের জন্য সবার কাছে আশীর্বাদ কামনা করেছেন, যেন তিনি স্বর্গবাসী হন।

এর আগে ১৯৯৪ সালে কুমার বিশ্বজিৎ তার বাবা সাধন রঞ্জন দে’কে হারান।

২০১৮ সালে শোভা রাণী দে ইউনিভার্সাল হাসপাতাল কর্তৃক ‘গরবিনী মা’ সম্মাননা পেয়েছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি এক ছেলে, দুই মেয়ে ও নাতি-নাতনি রেখে গেছেন।

ট্যাগ: bdnewshour24 কুমার বিশ্বজিৎ