banglanewspaper

আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ায় টি-২০ বিশ্বকাপের জন্য এবারের বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি-২০ ক্রিকেটের উইকেট উপযোগী বলে মনে করেন ঢাকা প্লাটুনের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। গত রাতে বিপিএলের ১২তম ম্যাচে স্বাগতিক চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের কাছে ১৬ রানে হারে ঢাকা। ঐ ম্যাচ হারের পর সংবাদ সম্মেলনে উইকেট নিয়ে এমন মন্তব্য করেন মাশরাফি।

বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক বলেন, ‘এবারের বিপিএলের উইকেট ভালো হচ্ছে। ঢাকার উইকেটও ভালো ছিল। উইকেটের কারণে খেলা ভালো হচ্ছে। বাংলাদেশ যখন আন্তর্জাতিক টি-২০ খেলতে কোথাও যাবে, তখন এমন উইকেটই পাবে। বোলারদের জন্য একটা চ্যালেঞ্জ থাকবে। ব্যাটসম্যানদেরও আত্মবিশ্বাস বাড়বে। যদি হাত খুলে খেলা যায়। ভালো উইকেট না পেলে আমাদের বোলাররা চিন্তা করে এই বোলিংই আমাদের শক্তি। কিন্তু এসব উইকেটে বোলিং করলে বোঝা যাবে যে শক্তির দিক আরও বাড়াতে হবে। এবার যে উইকেটগুলো পাচ্ছে খুব ভালো যে ওরা সামনের বিশ্বকাপের আগে নিজেদের অপশন তৈরি করতে পারবে। এ ছাড়া ব্যাটিং উইকেটে রান পেলে বিশ্বকাপের জন্য ব্যাটসম্যানদেরও আত্মবিশ্বাস বাড়াবে।’

এবারের বিপিএলে তরুণ বোলারদের পারফরম্যান্স ইতোমধ্যে নজর কেড়েছে মাশরাফির। বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে তরুণ বোলারদের সেভাবে তৈরি করা প্রয়োজন বলে মনে করেন ম্যাশ, ‘তরুণ বোলার যারা রয়েছে এখনই সময় তাদের ভালোভাবে তৈরি করা। আজকে (গতকাল) আর একজন ভালো বোলার দেখলাম। তার নাম হয়তো- মুগ্ধ। ভালো ও সম্ভাবনাময় একজন বোলার। ভালো গতি রয়েছে তার। আমার মতে, তরুণদের নিয়ে সুন্দর পরিকল্পনা অনুযায়ী সামনে এগিয়ে যাওয়া উচিত। এমন না যে, ভালো করছে দেখে এখনই তাদের দলে নিতে হবে। একটা নির্দিষ্ট সময় নিয়ে যদি তাদের তৈরি করা হয় ভালো হবে। শুধুমাত্র টি-২০ নয়, টেস্ট ক্রিকেটেও তাদেরকে নিয়েও ভাবতে হবে। এরা বাংলাদেশের ক্রিকেটের ভবিষ্যৎ। কিছু ম্যাচ ভালো খেললে বা কিছু ম্যাচ খারাপ করলেই তাদের দল থেকে বাদ দিয়ে দেয়া হয়। তাদের সঠিক পরিচর্যা করতে পারলে দীর্ঘ সময় দলকে সার্ভিস দিতে পারবে।’

বঙ্গবন্ধু বিপিএলে চট্টগ্রাম পর্বে গতকালই প্রথম খেলতে নামে ঢাকা। প্রতিপক্ষ ছিলো স্বাগতিক চট্টগ্রাম। প্রথমে ব্যাট করে ৪ উইকেটে ২২১ রান করে চট্টগ্রাম। জবাবে জয়ের সম্ভাবনা তৈরি করেও হারের স্বাদ নিতে হয় ঢাকাকে। ২০৫ রানে অলআউট হয় ঢাকা।

ম্যাচ হারের জন্য বোলারদের পারফরম্যান্সকে দুষছেন মাশরাফি, ‘আমার মনে হয় টার্গেট বেশি হয়ে গেছে। এই উইকেটে দেখে আসছি ১৮০-১৯০ তাড়া করা সম্ভব। ২২০ আমার মনে হয় ব্যাটসম্যানদের জন্য অনেক কঠিন। আমরা বোলিং গ্রুপ হিসেবে ভালো করতে পারিনি। ২০০ পর্যন্ত থাকলেও হিসেব নিকেশ করে খেলা যায়। এই টার্গেট ব্যাটসম্যানদের জন্য অনেক বেশি কঠিন। তারপরও ক্যালকুলেটিভ ব্যাটিং করলে, টপ অর্ডারে আর ১০-১৫ রান হলে খেলাটা অন্যরকম হতে পারতো। যে চারজন ছিল পিচে সবারই শট খেলার মতো সামর্থ্য আছে।’

ট্যাগ: bdnewshour24 মাশরাফি