banglanewspaper

ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়ন প্রতিরোধে নারীদেরকে স্বয়ংক্রিয় প্রতিরক্ষামূলক যন্ত্র ‘অ‌্যান্টি রেপ সিকিউরিটি ডিভাইস’ সরববারহ করতে একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠনের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। আইসিটি মন্ত্রণালয়ের সচিবের নেতৃত্বে এই কমিটিতে থাকবে আইসিটি বিভাগের চেয়ারম্যান, পুলিশের আইজীবী এবং বুয়েটের একজন বিশেষজ্ঞ রাখতে বলা হয়েছে।

আগামী ৬০ দিনের মধ্যে এই কমিটিকে অগ্রগতি প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করতে বলা হয়েছে। একইসঙ্গে নারীদেরকে ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়নের হাত থেকে রক্ষা করতে পর্যাপ্ত নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা গ্রহণের কেন নির্দেশ দেয়া হবে না, এই মর্মে রুল জারি করা হয়েছে।

রবিবার (১৯ জানুয়ারি) বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো: মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মো. আব্দুল হালিম। সঙ্গে ছিলেন অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান, ব্যারিস্টার শারমিন শিউলী ও অ্যাডভোকেট জামিউল হক ফয়সাল।

পরে আব্দুল হালিম সাংবাদিকদের বলেন, ‘আদালত বলেছেন দেশের সকল স্থানের মেয়েদের ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়ন প্রতিরোধে নিরাপত্তামূলক এলার্ম যন্ত্র সরবরাহের নির্দেশনা কেন দেয়া হবে না তা জানতে চেয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে আইসিটি সচিবের নের্তৃত্বে কমিটিকে আগামী ৬০ দিনের মধ্যে আদালতে প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ দিয়ছেন যাতে এই ধর্ষণ প্রতিরোধী যন্ত্রটি ব্যবহার করা যায়। এ ছাড়া এই এলার্মের সঙ্গে জরুরি হেল্পলাইন ৯৯৯ যুক্ত করা যাবে কিনা তাও জানতে চেয়েছেন আদালত।’

এর আগে যৌন নির্যাতন প্রতিরোধে নারীদেরকে অ‌্যান্টি রেপ ডিভাইস সরবরাহের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়।

রিটে নারীদের সম্মান ও মর্যাদা রক্ষায় পর্যাপ্ত নিরাপত্তামূলক ব‌্যবস্থা কেন গ্রহণ করা হবে না এ মর্মে রুল জারির আর্জি জানানো হয়। একইসঙ্গে বিদেশ থেকে অ‌্যান্টি রেপ ডিভাইস আনতে একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠনের নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড অ‌্যান্ড সার্ভিসেস ট্রাস্ট (ব্লাস্ট) ও সিসিবি ফাউন্ডেশনের পক্ষে অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান এ রিট দায়ের করেন। রিটকারী আইনজীবী জানান, অ‌্যান্টি রেপ ডিভাইস কোনও নারী তার শরীরে বহন করলে যৌন নির্যাতনের চেষ্টা করলে সংক্রিয়ভাবে ৯৯৯ কল চলে যাবে। এটা উন্নত দেশে ব‌্যবহার করা হয়। 

ট্যাগ: bdnewshour24 ধর্ষণ