banglanewspaper

আলফাজ সরকার আকাশ, শ্রীপুর(গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ ৭দিন জেল খাটার পর মুক্তি পেল গাজীপুরের শ্রীপুর থানা পুলিশের ভুলে গ্রেপ্তার হওয়া নিরীহ চা দোকানী রফিকুল। ২৩ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার গাজীপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের(বন) বিজ্ঞ বিচারক নাজমুন নাহার তাকে মুক্তি দেয়।

এর আগে গত শুক্রবার বন মামলার এক আসামীর নাম ও পিতার নামের সাথে মিল থাকায় নিরিহ চা দোকানী গ্রেপ্তার হওয়ার বিষয়টি একাধিক গনমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়। এরপরই টনক নড়ে প্রশাসনের।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) লিয়াকত আলী জানান,গতকাল বুধবার বিজ্ঞ আদালত  রফিকুলের বিষয়ে প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ দিলে বৃহস্পতিবার প্রতিবেদন জমা দেয়া হয়। তদন্তে জেলে থাকা রফিকুলের নির্দোষ ও প্রকৃত আসামীর সাথে তার মায়ের নামের ভিন্নতার বিষয়টি উল্লেখ করা হয়।

গাজীপুর জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(অপরাধ) একেএম জহিরুল ইসলামকে জানান, গ্রেফতারী পরওয়ানা থানায় আসলে পত্রে শুধু আসামির নাম, বাবার নাম ও ঠিকানা দেয়া থাকে। সেখানে তার কোন ছবি বা মায়ের নাম থাকে না। এক্ষেত্রে রফিকুলের নাম বাবার নাম ও ঠিকানা প্রকৃত আসামীর সাথে মিলে যাওয়ায় তাকে গ্রেফতার করা হয়। বিষয়টি নজরে আসার পর অনুসন্ধানে দেখা যায় প্রকৃত আসামীর সাথে রফিকুলের মায়ের নামের ভিন্নতা ছিল।

উল্লেখ্য, নাম,বাবার নাম ও ঠিকানা একই হওয়ায় গত শুক্রবার (১৭ই জানুয়ারী) বিকেলে নিরিহ চা দোকানী রফিকুলকে তার চায়ের স্টল থেকে গ্রেফতার করে শ্রীপুর থানা পুলিশ। আটকের পর সে অপরাধী না হওয়ার কাকুতি মিনতি করলেও তখন মন গলেনি পুলিশের।

ট্যাগ: ৭bdnewshour24 পুলিশের ভুল