banglanewspaper

পানির অপর নাম জীবন। খাবার ছাড়াও কিছুদিন মানুষ বাঁচতে পারে কিন্তু পানি ছাড়া বাঁচা সম্ভব নয় বলেই জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। এমনকি চিকিৎসকও রোগীর তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে ওঠার ক্ষেত্রে বেশি করে পানি পান করতে বলেন।

কিন্তু ইন্দোনেশিয়ার ৩৫ বছরের এক নারী দাবি করেছেন তিনি এক বছর ধরে কোনো পানি পান করেননি এবং তিনি যথেষ্ট সুস্থ রয়েছেন।

সফিয়া প্রতীক নামের ওই নারী জানান, এক বছর আগে থেকে শুকনো উপোষ করা শুরু করেছিলেন। আর বর্তমানে তিনি প্রতিদিন প্রায় ১৩-১৪ ঘণ্টা এই উপোষ করেন। তবে যখন তার পানীয় খাওয়ার প্রয়োজন পড়ে তখন তিনি ফলের রস খান। এ খবর দিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম মেট্রো ডট ইউকে।

স্বাভাবিকভাবে মানুষের শরীরে পানির প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। শরীরের স্বাভাবিক কাজকর্ম ঠিকভাবে করার জন্য প্রতিদিন পানি খাওয়া প্রয়োজন। কিন্তু বিগত এক বছর ধরে পানি না খেয়ে কীভাবে রয়েছেন সেটাই এখন সব থেকে বড় প্রশ্ন। ওই নারী দাবি করেছেন, তার শরীরের প্রয়োজনীয় পুষ্টি ফল সবজি এবং নারকেলের পানি থেকে পেয়ে থাকেন।

সফিয়া জানিয়েছেন, তিনি আগে একাধিক শারীরিক সমস্যাতে ভুগতেন। চিকিৎসকরা জানিয়েছিলেন, তাকে সুস্থ হতে গেলে অপারেশন করা ছাড়া অন্য কোনো পন্থা নেই। কিন্তু তারপরও তিনি তার এক বন্ধুর পরামর্শে এই শুকনো উপোষ শুরু করেছিলেন। এখন তিনি সুস্থ রয়েছেন এবং আগের থেকে যথেষ্ট সুস্থ এবং প্রাণবন্ত জীবনযাপন করেন।

তিনি জানিয়েছেন, সুস্থ থাকার জন্য পানি খাওয়ার প্রয়োজন নেই। শুকনো উপোষ শুরু করলে বোঝা যায় সুস্থ থাকতে শরীরের পানীয় জলের প্রয়োজন নেই। যদিও প্রথম দিকে একটু অসুবিধা হবে। কিন্তু একবার অভ্যেস হয়ে গেলে আর কোনো অসুবিধা হবে না।

ট্যাগ: bdnewshour24 পানি নারী