banglanewspaper

তাসিন রহমান: এ কেমন জীবন।

একমাত্র সন্তান প্রতিবন্ধী তাই কাছ ছাড়া করার মত অবস্থা নেই বিধবা মায়ের।শেষ বয়সে করতে পারছেননা কোনও কাজও।

নেত্রকোণার দুর্গাপুরে হতভাগ্য মা জামেনা খাতুন উপায়ন্তর না দেখে গলায় দড়ি বেঁধে ছেলেকে টানছেন এ গ্রাম থেকে ও গ্রামে। পেট চালাতে বৃদ্ধ মা ছেলেকে নিয়ে ভিক্ষায় নেমেছেন। শেষ বয়সে নিজের আর সন্তানের জন্য খুঁজছেন খাওয়া থাকার আশ্রয়,ছেলের চিকিৎসার টাকা।

শ্রবণ আর বুদ্ধির প্রতিবন্ধকতা নিয়ে জন্ম জাকির হোসেনের।জন্মের কিছুদিন পর বাবাকে হারায় জাকির। এরপর থেকেই একমাত্র ছেলেকে নিয়ে শুরু মায়ের জীবন যুদ্ধ।

সম্বলহীন মায়ের জীবন চলে হাত পেতে। এ গ্রাম থেকে ও গ্রামে ভিক্ষা করে নিজে ও নিজের ছেলের খাওয়ার টাকা জোগাড় করেন তিনি। 
দুমুঠো খাবার ও মাথা গোঁজার ঠাই পেতে প্রশাসনের দরজায় কড়া নারছেন মা জামেনা খাতুন।

বলেন, " আমি যদি ছেলেটারে রাইখা মারা যাই, আমার কষ্ট ,যে আমার পুতেরে কে বারি মারে, 
একটু গোসল করাইতে পারি না, একটু কলের লাইগা মানুষে কাইজ্যা করে,স্যার আমারে দয়া কইরা আফনারা একটু ঘর-দর দিবেন, আর আমার ছেলেটার ব্যবস্থা করবেন"।

সূত্র - যমুনা টিভি

ট্যাগ: bdnewshour24 প্রতিবন্ধী ছেলে গলায় দড়ি ভিক্ষা মা